ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:৫১ ঢাকা, রবিবার  ২৭শে মে ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

Facebook বন্ধ থাকবে : শিক্ষামন্ত্রী

প্রশ্ন ফাঁস রোধে পাবলিক পরীক্ষার সময় প্রয়োজনের ফেসবুক বন্ধ রাখা হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এজন্য টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ সংস্থাকে (বিটিআরসি) আইন খতিয়ে দেখারও নির্দেশ দিয়েছেন মন্ত্রী। সভায় উপস্থিত বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক কাজী মাহমুদুর রহমানের উদ্দেশ্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ফেসবুকে আনন্দ ফুর্তি হয়, আর কি হয়। প্রয়োজনে পরীক্ষার সময় ফেসবুক বন্ধ রাখুন। প্রয়োজনে পরীক্ষার সময় মোবাইল একদিন বন্ধ রাখুন। এ বিষয়ে আইন-কানুন দেখুন আপনারা।

আসন্ন এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিসহ সার্বিক বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে আয়োজিত সভায় এ কথা বলেন মন্ত্রী। সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বৃহস্পতিবার এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

মন্ত্রী বলেন, পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়ে এবার আমরা কঠোর অবস্থানে। যারা এটা করবেন তাদের রেহাই নেই। ধরা পড়লে তিনি বুঝবেন তার কপালে কি আছে। তাই আমি বলছি, এবার কেউ ও পথে (প্রশ্ন ফাঁস) হাঁটবেন না। হাত দিলে হাত পুড়ে যাবে। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ। হোমিওপ্যাথিক সিস্টেমে আর চলবে না। প্রশ্ন ফাঁস ঠেকাতে যা কিছু করা দরকার আমরা করবো।

প্রশ্নপত্র বা সাজেশন সত্য-মিথ্যা যা-ই হোক কারও কাছে পাওয়া গেলে বা ফেসবুকে দেওয়া হলে পরীক্ষা সম্পর্কিত আইন ১৯৮০ এবং তথ্য প্রযুক্তি আইনে শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষকে মামলা করার পরামর্শ দেন নুরুল ইসলাম নাহিদ।

নাহিদ বলেন, শিক্ষার্থীদের বিভ্রান্ত ও সরকারকে বেকায়দায় ফেলার জন্য ফেসবুকে প্রশ্ন ফাঁসের প্রচারণা চালানো হয়। কেউ কেউ এসব প্রচারণাকে উৎসাহিত করেন। অভিভাবকদের বলি, আপনারা এসব প্রচারণায় কান দেবেন না। শিক্ষার্থীদের মন দিয়ে লেখাপড়া করারও আহ্বান জানান মন্ত্রী।

Like & share করে অন্যকে দেখার সুযোগ দিন