Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৩৮ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

৫টি বদভ্যাসে চোখে ঘুম নেই!

দিনভর অফিসে হাড়ভাঙা খাটনির পর বিছানায় গা এলিয়ে দিলেও ঘুম যেন আসতেই চায় না। যতই চেষ্টা করুন না কেন, দু’চোখের পাতা এক হয় না কেন? জানেন কি, আপনার কয়েকটি বদভ্যাসের জন্যই ঘুমের ব্যাঘাত ঘটছে! জেনে নিন গাঢ় ঘুমের জন্য কোন কোন অভ্যাস ছাড়া উচিত।
১) অনিয়মিত ভাবে খাওয়ার অভ্যাস।

গবেষণায় দেখা গিয়েছে, যখন তখন খাবার খেলে ঘুমের উপর তার মারাত্মক প্রভাব পড়ে। ধরুন, আপনি বেশি রাতে প্রায় সাড়ে ১১টা নাগাদ ডিনার করেন। তবে সপ্তাহভর সেই রুটিনই ফলো করুন। এক দিন সাড়ে ১১টা আর অন্য দিন সন্ধ্যায় ডিনার করবেন না।

২) পিপারমিন্ট মাউথ ফ্রেশনার এড়িয়ে চলুন।

কাজের ফাঁকে অনেকেই মিন্ট ফ্লেভারের মাউথ ফ্রেশনার মুখে দেন। এতেও কিন্তু ঘুমের ব্যাঘাত ঘটতে পারে। গবেষণায় প্রকাশ, পিপারমিন্টের গন্ধে ব্রেন স্টিমুলেট হয়। ফলে ঘুম আসতে চায় না। তবে কি মাউথ ফ্রেশনার এড়িয়ে চলবেন? গবেষকরা জানান, মিন্ট ছেড়ে স্ট্রবেরি ফ্লেভারের মাউথ ফ্রেশনার মুখে দিন। একান্তই তা না হলে বাবলগামও চিবোতে পারেন।

৩) ঘুমোনোর আগে বই পড়া ছেড়ে ম্যাগাজিন পড়ুন।ঘুমোতে যাওয়ার আগে বিছানায় এলিয়ে অনেকেই থ্রিলার বা ক্ল্যাসিক নভেল গোগ্রাসে গিলতে থাকেন। তা না করে হালকা চালের কোনও ম্যাগাজিন পড়ুন। অবিশ্বাস্য হলেও প্রমাণিত, ঘুমের আগে থ্রিলারের মতো উত্তেজক বা ক্ল্যাসিকের মতো ডিমান্ডিং বই পড়লে গাঢ় ঘুমের সম্ভাবনা কমে আসে। এর বদলে স্পোর্টস বা বিনোদনমূলক ম্যাগাজিন পড়ুন।

৪) ঘুমের আগে ধূমপান করবেন না।

সিগারেটের নিকোটিন স্টিমুলান্ট হিসেবে পরিচিত। সিগারেট যদি একান্তই ছাড়তে না পারেন তবে ঘুমের অনেক আগেই ধূমপান করুন।

৫) ঘুমের আগে ঠান্ডা জলের ঝাপটা দেবেন না

ঠান্ডা জলের ঝাপটায় বেশ ঝরঝরে লাগে। দেহমন তরতাজা হয়ে ওঠে। ফলে ঘুম আসতে চায় না। ঠান্ডার বদলে সন্ধ্যায় হালকা গরম জলে মুখ ধুতে পারেন। আনন্দবাজার ।

 

FOLLOW US: