ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৪:৩৬ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

‘২ বছর ৩ মাস পর নির্বাচন’ প্রস্তুতির নির্দেশ শেখ হাসিনার

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশে সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে স্ব স্ব আসনে সক্রিয় কমিটি গঠন করার জন্য দলের সংসদ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, দেশের সার্বিক উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ জরুরি। তাই সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সকল শ্রেণী-পেশার মানুষকে অন্তর্ভুক্ত করে আপনাদেরকে নিজ নিজ এলাকায় সক্রিয় কমিটি গঠন করতে হবে।

আজ বিকেলে জাতীয় সংসদ ভবনের সরকার দলীয় সভা কক্ষে আওয়ামী লীগ সংসদীয় দলের সভায় সভাপতির ভাষণে শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

সভা শেষে কয়েকজন সংসদ সদস্য সাংবাদিকদের জানান, প্রধানমন্ত্রী সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ সম্পর্কে গণসচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি আগামী সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি নেয়ার জন্য দলীয় এমপিদের নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকারের মেয়াদ আড়াই বছর ইতোমধ্যে চলে গেছে। ২ বছর তিন মাস পর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তাই এখন থেকে আপনাদেরকে পরবর্তী নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে।’

pm446

দলের সংসদ সদস্যদের আশ্বস্ত করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ বর্তমানে একটি বৈশ্বিক সমস্যা। এ নিয়ে শংকিত হওয়ার কোন কারণ নেই। অতীতে আমরা বহু সমস্যা সামাল দিয়েছি। বর্তমানে এই সমস্যাও আমরা মোকাবেলা করবো।

গোটা বিশ্ব এখন সন্ত্রাস ও জঙ্গীবাদ মোকাবেলা করছে উল্লেখ করে আওয়ামী লীগ প্রধান বলেন, অন্যান্য দেশ এই সমস্যা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলেও বাংলাদেশ এই সামাজিক অভিশাপ দমন করতে সক্ষম হবে। তিনি বলেন, আমাদের একটি শক্তিশালী দল এবং বিপুলসংখ্যক দলীয় লোক রয়েছে। আমরা অবশ্যই সন্ত্রাস-জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে জয়ী হবো।

প্রধানমন্ত্রী চলমান উন্নয়ন প্রকল্পগুলো দ্রুত সম্পন্ন করতেও দলীয় সংসদ সদস্যদের প্রতি আহ্বান জানান। আজ রাজধানীর কল্যাণপুরে জঙ্গীদের বিরুদ্ধে সফল অভিযান পরিচালনার জন্য প্রধানমন্ত্রী আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলোর উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করে বলেন, তারা একটি বিরোচিত ভূমিকা পালন করেছে।