Press "Enter" to skip to content

২৪ সালের আগেই সব অনুপ্রবেশকারীকে বের করবে ভারত

এনআরসির বিরুদ্ধে কথা বলায় এবার রাহুল গান্ধীকে একহাতে নিলেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও ক্ষমতাসীন বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ। তিনি জানিয়েছেন ২৪ সালের নির্বাচনের আগে সব অনুপ্রবেশকারীকে বের করবে ভারত।

ঝাড়খণ্ড বিধানসভা নির্বাচনের প্রচারে গিয়ে আসামে জাতীয় নাগরিকত্ব বিল (এনআরসি) নিয়ে তিনি বলেন, বৈধ নাগরিকত্বের তালিকা থেকে বাদপড়াদের নিয়ে রাহুল গান্ধীর এত উদ্বেগ কেন।

রাহুল বাবা বলছেন– তাদের বের করে দেবেন না। তারা কোথায় যাবেন, তারা কী খাবেন? তাদের জন্য এত দরদ কেন আপনার, তারা কি আপনার চাচাতো ভাই?

অমিত শাহ আরও বলেন, আমি আপনাদের আশ্বাস দিচ্ছি- ২০২৪ নির্বাচনের আগে, সব অনুপ্রবেশকারীকে ভারত থেকে বের করে দেয়া হবে।

বিজেপি সভাপতি বলেন, আজ আমি আপনাদের বলতে চাই যে, ২০২৪ নির্বাচনের আগে, দেশজুড়ে এনআরসি করা হবে এবং সব অনুপ্রবেশকারীকে চিহ্নিত করে বের করে দেয়া হবে।

দেশের বৈধ নাগরিকদের চিহ্নিত করতে, সুপ্রিমকোর্টের নির্দেশে চলতি বছরের ৩১ আগস্ট আসামে জাতীয় নাগরিক তালিকা প্রকাশ করা হয়, তাতে বাদ পড়েন ২০ লাখ মানুষ। তালিকার বাইরে থাকাদের আপিল করতে চার মাস সময় দেয়া হয়েছে।

অমিত শাহ বলেন, উন্নয়নের মতো স্থানীয় ইস্যুর মতো ঝাড়খণ্ড নির্বাচনে সন্ত্রাসবাদ নির্মূল করা, মাও-বিচ্ছিন্নতাবাদ এবং অযোধ্যায় রামমন্দির নির্মাণ করাও অন্যতম ইস্যু।

বাবরি মসজিদ নিয়ে বিজেপি সভাপতি অভিযোগ করেন, সুপ্রিমকোর্টে শুনানি বন্ধ করার চেষ্টা করেছিল কংগ্রেস। কিন্তু আপনাদের সমর্থনে, আমরা দেখিয়েছি, এটি এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায়, অযোধ্যায় শুধু রামমন্দির নির্মাণ হবে।

ঝাড়খণ্ড মুক্তি মোর্চা, কংগ্রেস ও রাষ্ট্রীয় জনতা দলের জোটকেও আক্রমণ করেন অমিত শাহ।

শেয়ার অপশন: