ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:১৭ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

রুহুল কবির রিজভী
রুহুল কবির রিজভী, ফাইল ফটো

২২ জন নিহতের পরেও নির্লজ্জভাবে বললেন ‘নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে’: রিজভী

প্রথম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৩ প্রার্থীসহ ২২ জন নিহত হয়েছে দাবি করে বিএনপি বলেছে, ইসি নিজস্ব ক্ষমতা প্রয়োগ করে ব্যবস্থা গ্রহণ করলে এতগুলো জীবন দিতে হতো না। সহিংসতায় নির্বাচন কমিশন ও সরকারকে দায় নিয়ে পদত্যাগের আহ্বানও জানিয়েছে দলটি।
বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনের বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এসব মন্তব্য করেন ।
নির্বাচন কমিশন বিপদগামী প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে এমন অভিযোগ করে রিজভী আহমেদ বলেন, নির্বাচন কমিশনের আনুগত্য, সেবাদাসমূলক আচরণে এত মানুষের জীবনহানি হল। তারা কোনো ভূমিকাই পলেন করেনি। শুধু দায়সারাভাবে কিছু কথা বলেছে। নির্বাচন কমিশন পদক্ষেপ নিলে এতগুলো মানুষের জীবন দিতে হতো না। তারপরও তারা অত্যন্ত নির্লজ্জভাবে ‘নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে’ বললেন।
বিএনপির এই নেতা বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিজেই বলেছেন-রাষ্ট্রযন্ত্র সহযোগিতা করছে না। সেক্ষেত্রে প্রধান নির্বাচন কমিশনার নিজস্ব শক্তি প্রয়োগে যাবতীয় ব্যবস্থা নিতে পারতেন। সংবিধান লঙ্ঘনের জন্য সরকারের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করতে পারতেন। কিন্তু তিনি সেটি না করে অনুগত হয়ে প্রভূর মনোবাঞ্চনাই পূরণ করলেন।
তিনি বলেন, এই সরকার যেমন বেআইনী-জবরদখলকারী সরকার, তেমনি এই নির্বাচন কমিশনও এখন একটি বেআইনী প্রতিষ্ঠানে হিসেবে পরিণতি লাভ করেছে।
রিজভী বলেন, শুধুমাত্র জনমতকে অগ্রাহ্য করার কারণেই ইউপি নির্বাচনের প্রথম ধাপে পৈশাচিক বর্বরতা চরম মাত্রায় উপণীত হলো। সংঘাতে মানুষের মৃত্যুতে তারা শিহরিত হয় না। অসংখ্য মানুষের জখম ও অঙ্গহানিতে তাদের বিবেককে কোন নাড়া দেয় না। তাদের চাকুরিতে কোনো সমস্যা না হয়,সেই প্রচেষ্টাই চালিয়ে যাচ্ছেন।
উল্লেখ্য গতকাল মির্জা ফখরুল ইসলাম নিহতের সংখ্যা ১২ জন বললেও আজ রিজভী বলছেন ২২ জন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা ডা. জেড এম জাহিদ হোসেন, বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ দফতর সম্পাদক আব্দুল লতিফ জনি   প্রমুখ।