Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:২৩ ঢাকা, বুধবার  ১৪ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

২০১৪ সাল বাংলাদেশের জন্য আন্তর্জাতিক অর্জনের বছর

২০১৪ সালকে বাংলাদেশের জন্য আন্তর্জাতিক মহলের স্বীকৃতি ও অর্জনের বছর হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের অনেকগুলো উদ্যোগ বিশেষ করে বালিকা এবং নারীদের জন্য শিক্ষার উন্নয়ন, দারিদ্র্য নিরসন, জীবনযাত্রার মান উন্নয়ন, দেশব্যাপী স্বাস্থ্যসেবা ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি জোরদার ও আইসিটি খাতের উন্নয়ন বিশ্ব সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী নিজে, তাঁর কন্যা সায়মা হোসেন পুতুল ও তাঁর সরকারের মর্যাদাপূর্ণ অনেকগুলো আন্তর্জাতিক এওয়ার্ড অর্জন দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে। পাশাপাশি বাংলাদেশ কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশন (সিপিএ), ইন্টার-পার্লামেন্টারি ইউনিয়ন (আইপিইউ) ও ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) মতো অনেকগুলো সংস্থার নির্বাচনে বাংলাদেশ বিজয়ী হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গত ৮ সেপ্টেম্বর মেয়েদের উন্নয়ন ও নারী শিক্ষায় উল্লেখযোগ্য অবদান রাখার জন্য ইউনেস্কো থেকে বিশেষ স্মারক অর্জন করেন।
আন্তর্জাতিক সাক্ষরতা দিবস ২০১৪ উপলক্ষে এখানে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইউনেস্কো’র মহাপরিচালক ইরিনা বোকোভা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ‘শান্তির বৃক্ষ’ শিরোনামে স্মারক প্রদান করেন।
শেখ হাসিনা এই স্মারক গ্রহণ করেন এবং দেশের সকল নারী ও শিশুদের প্রতি উৎসর্গ করেন।
স্মারক হস্তান্তরের আগে ইউনেস্কো মহাপরিচালক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারীর রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নের পূর্বশর্ত হিসেবে নারী শিক্ষার বিষয় বিশ্ব দরবারে বলিষ্ঠভাবে তুলে ধরেছেন।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশব্যাপী স্বাস্থ্যসেবা ও সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনি, দারিদ্র্য দূরীকরণ ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে তাঁর সরকারের উদ্যোগের জন্য দ্বিতীয়বার মর্যাদাপূর্ণ সাউথ সাউথ কো-অপারেশন ভিশনারি এওয়ার্ড লাভ করেন।
প্রধানমন্ত্রী আইসিটি বিষয়ক অবৈতনিক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয় মায়ের পক্ষ থেকে ২১ নভেম্বর ওয়াশিংটনে এই এওয়ার্ড গ্রহণ করেন।
স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের (সিপিএ) নির্বাহী কমিটির চেয়ারপার্সন এবং সাবের হোসেন চৌধুরী এমপি ইন্টার পার্লামেন্টারি ইউনিয়নের (আইপিইউ) সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন।
দু’টি মর্যাদাপূর্ণ আন্তর্জাতিক সংস্থায় বিজয় অর্জন একটি অনন্যসাধারণ ঘটনা যা গণতন্ত্র ও গ্রহণযোগ্য শাসনের প্রতি শেখ হাসিনার জোরালো আনুগত্যের কারণে সম্ভব হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা, আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে বিশিষ্ট অটিজম বিশেষজ্ঞ সায়মা হোসেন পুতুল জনস্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে তাঁর অসাধারণ অবদানের জন্য বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) এওয়ার্ড লাভ করেছেন।
সায়মা হোসেন প্রথম জনস্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে অবদানের জন্য দু’টি এওয়ার্ড লাভ করেন। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের ডব্লিউএইচও’র আঞ্চলিক পরিচালক ড. পুনম ক্ষেত্রপাল সিং এ পুরস্কার তুলে দেন।
একসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) কর্মসূচি ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রকল্পের জন্য ওয়ার্ল্ড সামিট অন ইনফরমেশন সোসাইটি এওয়ার্ড ২০১৪ অর্জন করেছে। জেনেভায় আইটিইউ সদরদফতরে ১০ জুন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক এ পুরস্কার গ্রহণ করেন।
আন্তর্জাতিক টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়নের (আইটিইউ) পর পর দ্বিতীয় মেয়াদে ২০১৫ থেকে ২০১৮ সালের জন্য এশিয়া ও অষ্ট্রেলিয়া অঞ্চল থেকে বাংলাদেশ কাউন্সিল সদস্য হিসেবে পুনঃনির্বাচিত হয়েছে।
দক্ষিণ কোরিয়ার বুসানে ২৭ অক্টোবর আইটিইউ সম্মেলনে ওই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এতে বাংলাদেশ ১১৫ ভোট পেয়ে কাউন্সিল সদস্য নির্বাচিত হয়।
বাংলাদেশ মন্ট্রিয়েল প্রটোকলের ২৬তম বৈঠক এবং কনফারেন্স অব দ্য পার্টিস অব ভিয়েনা কনভেনশনে’র ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছে। প্যারিসে ইউনেস্কো সদর দফতরে ২০ নভেম্বর ওই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বাংলাদেশ থেকে বন ও পরিবেশ উপমন্ত্রী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হয়েছেন।