Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১:৪২ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২০শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

অর্থমন্ত্রী মুহিত
অর্থমন্ত্রী এএমএ মুহিত, ফাইল ফটো

“১ জুলাই থেকে ১৫ শতাংশ হারে মূসক”

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, আগামী অর্থবছর থেকে নতুন মূল্য সংযোজন কর (মূসক) আইন অনুযায়ী ১৫ শতাংশ হারে মূসক দিতে হবে।

তিনি বলেন,‘আমরা ১৫ শতাংশ মূসক রাখছি।ব্যবসায়ীদের মধ্যে হিসাব রাখার অভ্যাস গড়ে উঠুক। এতে নিজে এবং দেশ উভয়েই লাভবান হবে।’তবে বর্তমান সরকারের মেয়াদেই বিভিন্ন হারে মূসক প্রনয়ণ করা হবে।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর একটি হোটেলে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) এবং ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি ফেডারেশন (এফবিসিসিআই) আয়োজিত যৌথ পরামর্শক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে অর্থমন্ত্রী এ কথা বলেন।

সভায় এফবিসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে বিভিন্ন হারে মূসক আরোপের পাশাপাশি প্যাকেজ মূসক ব্যবস্থা বহাল রাখার সুপারিশ করা হয়।আগামী ১ জুলাই থেকে নতুন মূসক আইন কার্যকর হবে।এ আইনে পণ্য ও সরবরাহ পর্যায়ে ১৫ শতাংশ হারে মূসক আরোপ হবে।

পরামর্শক সভায় অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বিশেষ অতিথির বক্তব রাখেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআই সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ,জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন,সহসভাপতি মাহবুবুল আলমসহ বিভিন্ন সংগঠনের ব্যবসায়ী নেতারা বক্তব্য দেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন,আগামী অর্থবছরের বাজেটে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যখাতে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়া হবে।প্রতিবছরই এই দুই খাতকে সর্বাধিক গুরুত্ব দেওয়ার কথা বলা হয়। কিন্তু তা বাস্তবায়ন হয় না। তবে এবারের বাজেটে এই দুই খাত সর্বাধিক গুরুত্ব পাবে।

অন্যান্য বারের মত এবারও পরিবহন ও জ্বালানী খাত বিশেষ গুরুত্ব পাবে বলে তিনি জানান।

অনুষ্ঠানে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, সরকার সর্বত্র সুশাসন ও ন্যায্যাতা নিশ্চিত করতে চাই। এজন্য আমরা রাজস্ব প্রশাসনে সংস্কার কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছি। পাশাপাশি অটোমেশন কার্যক্রমও এগিয়ে নেওয়া হচ্ছে।

সভায় এফসিসিআইয়ের পক্ষ থেকে বিভিন্ন সুপারিশ তুলে ধরা হয়।