ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:০৩ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

সুপ্রিমকোর্ট
সুপ্রিমকোর্ট

‘১২ জুলাই সুপ্রিমকোর্ট খুলছে’

সাপ্তাহিক ছুটি, সরকার ঘোষিত ছুটি, ঈদ-উল ফিতর এবং কোর্টের অবকাশ শেষে দেশের সর্বোচ্চ আদালতে নিয়মিত বিচারিক কার্যক্রম কাল ১২ জুলাই থেকে শুরু হচ্ছে।

গত ১৭ জুন থেকে সুপ্রিমকোর্টের ছুটি ও অবকাশ শুরু হয়। এ সময়ে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে জরুরি মামলা সংক্রান্ত বিষয়াদি শুনানি ও নিষ্পত্তির জন্য মামলা সংক্রান্ত সুনির্দিষ্ট এখতিয়ার দিয়ে ২০টি অবকাশকালীন বেঞ্চ গঠন করে দিয়েছিলেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা।

অবকাশকালীন ও ঈদ-উল ফিতরের ছুটির পর উচ্চ আদালতে বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের অর্থপাচার মামলাসহ বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ মামলার নিষ্পত্তি হতে পারে বলে আদালত সূত্র জানায়। তারেক রহমান ও ব্যবসায়ী মামুনের অর্থপাচার মামলায় দুদকের আনা আপিল শুনানি শেষে এখন রায়ের জন্য হাইকোর্টের একটি ডিভিশন বেঞ্চে অপেক্ষমান রয়েছে।

৩৪টি ওষুধ কোম্পানির লাইসেন্স বাতিলের বিষয়ে হাইকোর্টে রুল নিষ্পত্তির অপেক্ষায় রয়েছে। মানবতাবিরোধী অপরাধে মীর কাসেম আলীর মৃত্যুদন্ডের রায় পুনর্বিবেচনার (রিভিউ) আবেদনের শুনানির জন্য আপিল বিভাগে দিন ধার্য রয়েছে। গাজীপুরের জনপ্রিয় আওয়ামী লীগ নেতা আহসান উল্লাহ মাস্টার হত্যা মামলার খালাসপ্রাপ্তদের রায় স্থগিত করার বিষয়টি শুনানির জন্য ধার্য রয়েছে। টাঙ্গাইল-৪ আসনের উপনির্বাচনে কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র নিয়ে আপিলের শুনানির জন্য আপিল বিভাগে ধার্য রয়েছে। সাংবাদিক শফিক রেহমানের জামিন আবেদন বিষয়েও আপিল বিভাগে দিন ধার্য রয়েছে।

এদিকে মুক্তিযুদ্ধকালে আলবদর বাহিনীর নেতা মুহাম্মদ আশরাফ হোসাইনসহ জামালপুরের আট রাজাকারের মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার রায় আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে দেয়া হবে যে কোনো দিন। একই মামলার আট আসামির মধ্যে গ্রেফতার হয়ে কারাগারে আছেন এডভোকেট শামসুল আলম ওরফে বদরভাই ও এস এম ইউসুফ আলী। মুহাম্মদ আশরাফ হোসাইন ছাড়াও পলাতক অন্য আসামিরা হলেন- অধ্যাপক শরীফ আহমেদ ওরফে শরীফ হোসেন, মোহাম্মদ আবদুল মান্নান, মোহাম্মদ আবদুল বারী, মো. হারুন ও মোহাম্মদ আবুল হাসেম। গত ১৯ জুন মামলাটির বিচার কার্যক্রম শেষে রায়ের জন্য রাখা হয়।