ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৭:২৭ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

‘১/১১-র ঘটনা তদন্তে কমিশন গঠন না করলে পুনরাবৃত্তি হবে’

বাংলাদেশের রাজনীতিতে আলোচিত-সমালোচিত ১/১১-র ঘটনা তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম।

তিনি বলেছেন, ‘ওই সময় যা ঘটেছে তা কমিশনের মাধ্যমে খুঁজে বের না করলে এ ধরনের ঘটনার আবারও পুনরাবৃত্তি হবে।’

মঙ্গলবার দুপুরে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে তিন দিনব্যাপী সাউথ এশিয়ান নিউরোসার্জিকাল কংগ্রেস ও অষ্টম আন্তর্জাতিক বৈজ্ঞানিক সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ দাবি জানান।

নাসিম বলেন, ‘ওয়ান-ইলেভেনের সময় যারা খলনায়ক (ভিলেন) ছিলেন, তারা আজ নায়ক হয়ে যাচ্ছেন। এদেরই একজন মাহফুজ আনাম। এতদিন পরে এসে তিনি বলে দিলেন- ভুল করেছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘রাজনীতিবিদরা রাজনীতি করবেন, ডাক্তাররা ডাক্তারি, সাংবাদিক বন্ধুরা সাংবাদিকতা করবেন- এটাই বড় কথা। যার যার সীমানা আছে, সীমানা কেউ অতিক্রম করলে ভুল করাই স্বাভাবিক।’

আওয়ামী লীগের প্রবীণ এই নেতা বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে। আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। রাজনীতিবিদরাই দেশ সৃষ্টি করেছেন। আমাদের দেশের রাজনীতিবিদরা ভালো করতে পারেন, খারাপও করতে পারেন। তারা ভুলও করতে পারেন।’

তিনি বলেন, ‘ওয়ান-ইলেভেনের সময় চক্রান্ত করে শেখ হাসিনা ও খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরানোর চেষ্টা করা হয়েছিল। কিছু অশুভ শক্তি ক্ষমতা দখল করতে চেয়েছিল। কিন্তু শেখ হাসিনা দক্ষতার সঙ্গে, যোগ্যতার সঙ্গে সে সময় গণতন্ত্র রক্ষা করেছেন।’

নাসিম বলেন, ‘অতীতকে ভুলে যাওয়া সম্ভব নয়। অতীত থেকে আমরা শিক্ষাগ্রহণ না করলে সামনে এগিয়ে যেতে পারব না। আজ যে ভুলের কথা বলা হচ্ছে, সেজন্য কী হয়েছে? একজন মানুষকে জেলখানায় বন্দি থাকতে হয়েছে। আমাকে দু’বছর বন্দি অবস্থায় রাখা হয়েছে। আমি অসুস্থ হয়ে পড়েছি। কে ফিরিয়ে দেবে আমার সে সব সময়?’

তিনি বলেন, ‘এজন্য শুধু ভুল স্বীকার করলে হবে না। দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করাও তার (মাহফুজ আনাম) উচিত ছিল। যেটি আমি প্রথমে বলেছিলাম মাহমুদুর রহমানের সময়। দায়িত্বজ্ঞানহীন ব্যক্তির দায়িত্বে যদি রাখতে হয়, তবে তাকে পদত্যাগ করতে হবে।’

বাংলাদেশ সোসাইটি অব নিউরোসার্জনসের সভাপতি অধ্যাপক কনক কান্তি বড়ুয়ার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন- বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অধ্যাপক মাহমুদ হাসান, মহাসচিব এম ইকবাল আর্সলান, স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ, সাউথ এশিয়ান অ্যাসোসিয়েশন অব নিউরোসার্জনসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি অধ্যাপক ইউ পি দেবকোটা প্রমুখ।