ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৯:৩২ ঢাকা, বুধবার  ২৩শে মে ২০১৮ ইং

সংসদ সদস্য লিটন
নিহত গাইবান্ধা-১ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন, ফাইল ফটো

“১০ বছরের শিশুর দুই পায়ে সরকার দলীয় এমপির গুলি”

গাইবান্ধা-১ আসনের সরকার দলীয় সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের গুলিতে সৌরভ নামে এক শিশু গুরুতর আহত হয়েছেন। তাকে প্রথমে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
শুক্রবার সকাল পৌনে ৬টার দিকে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা শহরের ব্র্যাক মোড়ের গোপালচরণ এলাকায় এই ঘটনা ঘটে।
স্থানীয়রা জানান, মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন গাইবান্ধা-১ আসনের আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য। তিনি সকালে গাড়িতে করে বামনডাঙ্গা থেকে সুন্দরগঞ্জ আসছিলেন। বামনডাঙ্গা-সুন্দরগঞ্জের ব্র্যাক মোড়ের পশ্চিম পাশের গোপালচরণ এলাকায় এমপির গাড়ির পৌঁছালে তার গাড়ির সামনে দৌঁড়ে এসে দাঁড়ায় সৌরভ। এসময় এমপি তার কাছে থাকা পিস্তল বের করে সৌরভের দুই পায়ে দুটি গুলি করে।
স্থানীয়রা আরো জানান, সৌরভের বাড়ি সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের গোপালচরণ গ্রামে। তার বাবার নাম সাজু মিয়া। সে গোপালচরণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র। শিশুটির বয়স ১০ বছর।

আশে পাশের লোকজন ছুটে এলে সংসদ সদস্য গাড়ি নিয়ে দ্রুত সরে পড়েন। প্রথমে তাকে উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হলে তাকে সেখান থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
সৌরভের চাচা সাজা মিয়ার অভিযোগ, প্রতিদিন তিনি সৌরভকে নিয়ে রাস্তায় হাঁটাহাটি করে ব্যায়াম করেন। শুক্রবার ভোরেও তিনি সৌরভকে নিয়ে রাস্তায় হাঁটছিলেন। কিন্তু এমপি লিটন হঠাৎ করে গুলি ছুড়ে কেন ওই ঘটনা ঘটালেন তা তার বোধগম্য নয়।

সুন্দরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি- তদন্ত) জিন্নাত আলী গুলিতে শিশু আহতের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করলেও কিভাবে বা কে গুলি করেছে সে বিষয়ে কোন মন্তব্য করেননি। তিনি জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে যান। পুলিশের পক্ষ থেকে  ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

খবর পেয়ে গাইবান্ধা থেকে জেলা প্রশাসক মো. আব্দুস সামাদ এবং পুলিশ সুপার মো. আশরাফুল ইসলাম সুন্দরগঞ্জ যান। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তারা সেখানে অবস্থান করছিলেন।
এদিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রেজিস্টার মাহফুজুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, অপারেশন করে শিশুটির দুই পায়ের গুলি বের করতে। শিশুটির দুটি পায়েই ঠিক হাটুর নিচে গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে জানান এই চিকিৎসক।
এ ব্যপারে সংসদ সদস্য মো. মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের মোবাইল ফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তা বন্ধ পাওয়ায় যায়।