ব্রেকিং নিউজ

রাত ১২:৫৭ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

১০ দিনের রিমান্ডে মান্না

Like & Share করে অন্যকে জানার সুযোগ দিতে পারেন। দ্রুত সংবাদ পেতে sheershamedia.com এর Page এ Like দিয়ে অ্যাক্টিভ থাকতে পারেন।

 

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্নাকে আদালতে হাজির করে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলায় ১০ দিনের রিমাণ্ডে নিয়েছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর হাকিম মাহবুবুর রহমানের আদালত বিকালে পুলিশের আবেদনের প্রেক্ষিতে মান্নার রিমাণ্ড মঞ্জুর করেন।

বুধবার  মামলার তদন্তের জন্য গুলশান থানার এসআই আব্দুল বারী আদালতে এ আবেদন জানান।

বুধবার দুপুরে ডিবি কার্যালয় থেকে মান্নাকে আদালতে  হাজির করার জন্য নেয়া হয়।  তাকে রাষ্ট্রদোহ মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। এটি জামিন অযোগ্য মামলা।

এর আগে সকালে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম জানিয়েছেন সরকার উৎখাতের বিষয়ে মান্নাকে জিজ্ঞাসাবাদে তথ্য পেলে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা করা হবে।
বুধবার সকাল ১১টা দিকে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে ডিবি যুগ্ম কমিশনার এ কথা জানান।
সোমবার রাত ৩টার দিকে বনানীর একটি বাসা থেকে তুলে নিয়ে যাওয়ার ২১ ঘণ্টা পর মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে র‌্যাব সদস্যরা তাকে গুলশান থানা-পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন। তার বিরুদ্ধে সশস্ত্র বাহিনীর সদস্যদের বিদ্রোহে প্ররোচনা দেয়ার অভিযোগে মামলা হয়েছে। এ মামলায় মান্না ছাড়াও অজ্ঞাতনামা একজনকে আসামি করা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, মান্নার বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির ১৩১ ধারায় মামলা করা হয়েছে। এসআই সোহেল রানা মামলাটির বাদী। মামলায় মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মান্নাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।
বিভিন্ন মিডিয়ায় ওই টেলিফোন আলাপ নিয়ে রিপোর্ট প্রকাশের পর সমালোচনার মুখে পড়েন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না। দাবি করা হচ্ছে ওই ফোনালাপের একটিতে সরকার উৎখাতে সামরিক হস্তক্ষেপে আগ্রহ প্রকাশ করেন নাগরিক ঐক্যজোটের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না।