ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:০৯ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৬ই আগস্ট ২০১৮ ইং

–হ্যাপী Wife হ্যাপী Life–

হ্যাপী Wife হ্যাপী Life. মাত্র চারটি শব্দ। এই চারটি শব্দের দ্বিতীয় ও শেষ শব্দটি টিক থাকলেই দাম্পত্য জীবনে হ্যাপী হওয়া যায়। একটু ব্যতিক্রম হলেই অশান্তি আর অশান্তি। অশান্তি শুরু হলেই লাইফটা পানসে মনে হয়। কোন কিছুই আর ভাল লাগবে না। ভাল লাগার কথা ও নয়। তাই সবকিছু ভাল রাখার জন্য, হ্যাপীতে থাকার জন্য দাম্পত্য জীবনে প্রথমেই Wife কে হ্যাপী রাখতে হবে। তারপর Life টাও হ্যাপী হবে। Wife কে হ্যাপী রাখার জন্য স্বামীদেরকে অনেক ত্যাগ স্বীকার করতে হয়। শুধুমাত্র অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থান ও চিকিৎসা সেবা দিলেই চলবে না সেই সাথে আরো অনেক কিছু অতিরিক্ত সেবা দিতে হবে। সেই সেবা গুলোর বিনিময়ে আপনি Wife এর নিকট নয়নের-নয়নমনি-আদর্শ স্বামী, জানের জান, অন্যদিকে শাশুর বাড়ী ও তাদের আত্বীয়-স্বজনে আপনার কদর বেড়ে যাবে। চারিদিকে শুধুই আপনার প্রশংসা আর প্রশংসা।
-Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে:
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে তার কথা মত চলতে হবে। প্রতিটি আবদার মনোযোগ সহকারে শুনতে হবে। সেই আবদার গুলো একের পর এক পুরুন করতে হবে।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে যৌথ পরিবার থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। কারণ বর্তমানে বেশীর ভাগ Wife যৌথ পরিবারে বসবাস করতে চায় না। তারা শুধুমাত্র স্বামীকে নিয়ে অন্যত্র বসবাস করতে চায়। শাশুর বাড়ী থেকে দুরে থাকতে চায়।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে নিজের বেকার ভাইকে প্রতিষ্টিত না করে শালা বাবুকে প্রতিষ্টিত করতে হবে। কোন কোন Wife এর স্বামী তার ভাই-বোনদের জন্য কিছু করুক মোটেও সহ্য করতে পারে না।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে নিজের মাতা-পিতাকে খবু বেশী অর্থ দেয়া যাবে না। বৃদ্ধ বয়সে তারা এত টাকা খরচ করার কোন দরকার নেই এই কথাটি কিছু কিছু Wife তার স্বামীকে বলে থাকে।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে নিজের ভাই-বোনদের সাথে খুব বেশী সম্পর্ক রাখা যাবে না। কারন তারা সংসারে এসে ঝামেলা করতে পারে। কিছু কিছু Wife তাই মনে করে থাকে।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে বেতনের পুরোটায় খরচ করতে হবে। কোন কোন Wife তার স্বামীকে বেশী টাকা উপার্জন করার জন্য চাপ দিয়ে থাকে। প্রয়োজনে অবৈধ উপায়ে হোক।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে চাহিবা মাত্র টাকা-পয়সা বউয়ের হাতে দিতে হবে। কোন কোন Wife অতিরিক্ত টাকা খরচ করার জন্য স্বামীর সাথে ঝগড়া করে থাকে।
۞ Wife কে হ্যাপী রাখতে হলে হলে Wife এর অন্যায় আচরনের প্রতিবাদ করা যাবে না। নীরবে সহ্য করার ক্ষমতা থাকতে হবে। কোন কোন Wife বর্তমানে বিতর্কিত কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। যেমনঃ স্বামীকে না জানিয়ে বাইরে ঘুরে বেড়ানো, ফেইসবুকে পুরাতন বন্ধুদের সাথে আড্ডা দেয়া আরও কত কি—-
কি আর বলব———-দাম্পত্য জীবনে এখন আর আগের মত সুখ-শান্তি নাই। বেশীর ভাগ ফ্যামেলীতে অশান্তি আর অশান্তি। কেউ কেউ আধুনিকতার নামে পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে। পরিবার-সমাজ থেকে দুরে সরে যাচ্ছে। ইচ্ছেমত জীবন যাপন করছে। অনেক স্বামী তার Wife কে হ্যাপী রাখতে গিয়ে নিজের অতীতকে ভুলে যাচ্ছে। ছোট বেলার মা-বাবার লালন-পালনের কথা ভুলে গিয়ে Wife কে নিয়ে দুরে সরে যাচ্ছে।
পরিবারের গুলো হয়ে যাচ্ছে অন্যরকম।  নেই কোন ভালবাসার বন্ধন—–   আসুন হে ভাই-বন্ধুগন! Wife কে হ্যাপী রাখতে গিয়ে মা-বাবা-ভাই-বোন-আত্বীয়-স্বজন-পাড়া-প্রতিবেশী কাউকে যেন অবহেলা না করি—   সূত্রঃ ওয়েবসাইট

Like & share করে অন্যকে দেখার সুযোগ দিন