Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:১৮ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

সোফায় হাঁটু মুড়ে বসে মোবাইল হাতে ব্যস্ত কেলিয়ান কনওয়ে
মোবাইল ফোন দিয়ে ছবি তুলছেন কেলিয়ান কনওয়ে

হোয়াইট হাউসের সোফায় হাঁটু মুড়ে বসা নিয়ে বিতর্ক

হোয়াইট হাউসের ওভাল অফিসে সোফার ওপর হাঁটু ভেঙ্গে বসা প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উপদেষ্টা কেলিয়ান কনওয়ের এক ছবি নিয়ে চলছে তীব্র বিতর্ক।

ওভাল অফিসে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের কৃষ্ণাঙ্গ প্রধান কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর নেতারা। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প যখন এই কৃষ্ণাঙ্গ নেতাদের সঙ্গে ছবি তোলার পোজ দিচ্ছেন, তখন সামনের সোফায় হাঁটু মুড়ে বসে আছেন তাঁর উপদেষ্টা কেলিয়ান ওয়ে। তাঁকে হাতের মোবাইল ফোন নিয়ে ব্যস্ত থাকতে দেখা যাচ্ছে।

এই ছবিটি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করে অনেকে কেলিয়ান কনওয়ের তীব্র সমালোচনা করছেন এই বলে যে তিনি প্রেসিডেন্টের অফিস এবং কৃষ্ণাঙ্গ নেতাদের প্রতি অশ্রদ্ধা দেখিয়েছেন।

টুইটারে একজন মন্তব্য করেছেন, “জনগণের ওভাল অফিসে এরকম আচরণ কেউ করতে পারে না।”

আরেকজনের মন্তব্য, “আপনার আগে বহু মহামানব এই সোফায় বসেছেন। তাদের কথা ভেবে পা নামিয়ে বসুন।”

কেলিয়ান কনওয়ের দেহের অঙ্গভঙ্গি নিয়ে প্রশ্ন তুলে অনেকে বলছেন, এই বৈঠকটিকে যে তিনি মোটেই গুরুত্বের সঙ্গে নিচ্ছেন না, এই ছবি সেটাই প্রমাণ করে।

তবে কেলিয়ান কনওয়েকে সমর্থন করে অনেকে বলছেন, মিছেমিছি এই ঘটনা নিয়ে চায়ের কাপে ঝড় তোলা হচ্ছে।

কেউ কেউ প্রেসিডেন্ট ওবামার একটি পোষ্ট করে দেখিয়েছেন যে তিনিও একবার ওভাল অফিসে বসে থাকা ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সামনে টেবিলে পা তুলে দিয়ে টেলিফোনে কথা বলছিলেন।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের উপদেষ্টা কেলিয়ান কনওয়েকে নিয়ে বিতর্ক এটাই প্রথম নয়। মিস্টার ট্রাম্পের বিতর্কিত ইমিগ্রেশন নিষেধাজ্ঞার সমর্থনে কথা বলতে গিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে এমন এক হত্যাযজ্ঞের কথা উল্লেখ করেছিলেন যা আসলে বাস্তবে ঘটেনি।

এছাড়া তিনি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কন্যা ইভানকার ফ্যাশন ব্রান্ডের পক্ষে প্রচার চালিয়েও বিতর্ক সৃষ্টি করেন। তিনি এক্ষেত্রে সরকারী দায়িত্বে থাকা অবস্থায় একাজ করে নৈতিকতা ভেঙ্গেছেন বলে অভিযোগ উঠে। বিবিসি