সব ধরনের হুমকির বিরুদ্ধে সৌদি আরবকে সমর্থন দেয়ার নিশ্চয়তা দিয়েছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনকে সামনে রেখে দুই দিনের সৌদি সফরে শুক্রবার পাক প্রধানমন্ত্রী এই নিশ্চয়তা দিয়েছেন বলে ডন অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে।

এ সময় দুই দেশের মধ্যকার বহুমুখী ও গভীর সম্পর্ককে সমৃদ্ধ করার প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করা হয়েছে।

সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদ ও সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে আলাদা বৈঠক করেছেন ইমরান খান।

এসময় তিনি দেশটির দুটি তেল স্থাপনায় গত সপ্তাহের ভয়াবহ হামলার নিন্দা জানিয়েছেন।

গত শনিবারে বাকিক ও খরিচ তেলক্ষেত্রে হামলায় সৌদি আরবের তেল উৎপাদন অর্ধেকের বেশি কমে গিয়েছিল। এ হামলার জন্য সৌদি ও যুক্তরাষ্ট্র চিরবৈরী ইরানকে দুষছে। যদিও সব দায় অস্বীকার করছে তেহরান।

নিশ্চয়তা দিয়ে ইমরান খান বলেন, সৌদি আরবের নিরাপত্তা ও আঞ্চলিক অখণ্ডতার জন্য যে কোনো হুমকির বিরুদ্ধে পাকিস্তানের প্রতিশ্রুতি রয়েছে।

এ সময় অধিকৃত কাশ্মীরে ভারত সরকারের ভয়াবহ মানবাধিকার লঙ্ঘনের কথা উল্লেখ করেন ইমরান খান।

তিনি বলেন, গত ৫ আগস্ট অবৈধভাবে কাশ্মীরের স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা কেড়ে নেয়ার মাধ্যমে আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও শান্তির জন্য হুমকি তৈরি করেছেন ভারতীয় হিন্দুত্ববাদী মোদি সরকার।

কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে এ ইস্যুতে শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য একসঙ্গে কাজ করে যেতে সম্মত হন সৌদি নেতৃবৃন্দ।