ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:২১ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ছবিঃ ইন্টারনেট

হিন্দু দম্পতি কৃতজ্ঞতা জানাতে মেয়ের নাম রাখলেন ইউনুস

বিভাজন এবং অসহিষ্ণুতার পরিবেশের মধ্যেই ভারতের দেখা মিলল। আসল ভারত। সৌজন্যে বন্যা কবলিত চেন্নাই। জাতপাত থেকে ধর্ম— প্রতি দিন বিভিন্ন মাপকাঠির ভিত্তিতে সমাজ যখন খণ্ডিত হচ্ছে, তখন সব কিছুর উপরে উঠে মানব ধর্মের কথা মনে করিয়ে দিলেন এক দম্পতি। চেন্নাই নিবাসী হিন্দু ওই দম্পতি মোহন-চিত্রা নিজেদের সদ্যোজাত কন্যা সন্তানের নাম রাখলেন ‘ইউনুস’।

এর পেছনে মানবতার গল্প রয়েছে। রয়েছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশের এক কাহিনিও। কী রকম?

মোহন এবং চিত্রা চেন্নাইয়ের যে এলাকায় থাকেন সেটি সাম্প্রতিক বন্যায় প্রায় ডুবে যেতে বসে। ঘরের ভেতরে জল। এমনকী, বাইরের রাস্তাতেও গলা সমান জল ছিল। সেই অবস্থায় প্রসব বেদনা ওঠে চিত্রার। কিন্তু, হাসপাতাল যাওয়া তো দূরস্থান স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ির বাইরে বেরোবেন কী করে! ভেবে কোনও কুল-কিনারা বের করতে পারেননি মোহন। সেই সময়ে ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হন এক মুসলমান যুবক। নাম মহম্মদ ইউনুস। নৌকা করে ওই দম্পতিকে হাসপাতালে পৌঁছে দেন তিনি।

এর পর হাসপাতালে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন চিত্রা। এবং ইউনুসের প্রতি শ্রদ্ধা এবং কৃতজ্ঞতা জানাতে ওই দম্পতি সেই মেয়ের নাম রাখেন তাঁদের উদ্ধারকর্তার নামের সঙ্গে মিলিয়ে। সম্প্রতি সে কথা ইউনুসকে জানিয়েছেন ওই দম্পতি। শুধু তাই নয়, মোহন নিজের বেতনের ৫০ শতাংশ টাকা দুঃস্থ এবং দুর্গত মানুষদের কাজে দান করবেন বলেও প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। মোহনের পাঠানো সেই বার্তা নিজের ফেসবুকে পোস্ট করেছেন ইউনুস। লিখেছেন, ‘এর থেকে ভাল আশীর্বাদ আর কী হতে পারে! তোমার ভাই ইউনুস।’

মোহন আরও জানিয়েছেন, এক দিন নবাগতাকে নিয়ে ইউনুসের সঙ্গে দেখা করতে যাবেন। আনন্দবাজার