ব্রেকিং নিউজ

রাত ২:১৬ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

হারিছসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা

সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়া হত্যা মামলার সংশোধিত চার্জশিট গ্রহণ করেছেন আদালত। একই সঙ্গে খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীসহ পলাতক ১১ আসামীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

রোববার দুপুরে হবিগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রশিদ আহমেদ মিলনের আদালত তাদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।কিবরিয়া হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মেহেরুন নেছা পারুল রবিবার দুপুরে দুই আসামীর নাম সংশোধন করে চতুর্থ দফায় সম্পূরক চার্জশিট দাখিল করেন।গত ১৩ নভেম্বর কিবরিয়া হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মেহেরুন নেছা পারুল তৃতীয় দফায় সম্পূরক চার্জশিট দাখিল করেন।ওই চার্জশিটে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সাবেক রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী এবং হবিগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও হবিগঞ্জ পৌর মেয়র জি কে গউছসহ নতুন ১১ জনের নাম অন্তর্ভুক্ত করে ৩৫ জনকে আসামি করা হয়।হবিগঞ্জ আমলি আদালতের বিচারক রোকেয়া বেগম শুনানিকালে গত ৩ ডিসেম্বর সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী ও হবিগঞ্জ মেয়র জি কে গউছের নাম-ঠিকানা ভুল থাকায় বিচারক ২১ ডিসেম্বর ঠিকানা সংশোধন করে চতুর্থ দফায় সম্পূরক চার্জশিট দাখিলের আদেশ দেন।২০০৫ সালের ২৭ জানুয়ারি হবিগঞ্জ সদর উপজেলার বৈদ্যের বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে ঈদ পরবর্তী এক জনসভা শেষে বের হওয়ার পথে গ্রেনেড হামলায় সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এ এম এস কিবরিয়াসহ পাঁচজন নিহত হন।