Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:৪৭ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

হঠাৎ গণ্ডগোলে নিরাপদে থাকতে করণীয়

অস্থিতিশীল সময় কখনো না কখনো ছুঁয়ে যায় আমাদের জীবন। বিশেষ করে যখন রাজনৈতিক অস্থিরতার ডামাডোলে থাকে দেশ, তখন ঘটেই যেতে পারে প্রাত্যহিক জীবনে ছন্দপতন। বিশেষ করে এমন দুর্ভোগ তো শহরবাসী মাত্রেরই কপালের লিখন! সমাবেশ, মিটিং, মিছিল, অবরোধ, হরতাল ইত্যাদি যেকোনো কারণে শহরের কোনো বিশেষ অংশে শুরু হয়ে যেতে পারে বড় ধরনের গোলমাল, দাঙ্গাহাঙ্গামা। পুলিশ রাস্তা আটকে দিতে পারে বা যানবাহনের রুট ঘুরিয়ে দেওয়া হতে পারে। জরুরি দরকারে পথে বেরিয়ে আপনি হয়তো আটকা পড়লেন পথেই। অথবা আপনার সন্তান শহরেই সেই বিশেষ অংশেই স্কুলে পড়ে, তার ছুটির সময় হয়েছে। আপনি যেতে পারছেন না তাকে আনতে। কিংবা আপনি নিজেই আটকা পড়েছেন গণ্ডগোলের সেই জায়গায়। কী করবেন তখন? এমন পরিস্থিতিতে পড়লে কিছু কাজ রয়েছে যা আপনার করণীয়। আর এতেই আপনি থাকবেন নিরাপদ।

  • – মাথা ঠাণ্ডা রাখুন। অযথা হাহুতাশ করে অসুস্থ হয়ে পড়বেন না। কারণ আপনি অস্থির হলে বিপদ বাড়বে বই কমবে না। তাই ঠাণ্ডা মাথায় ঠিক করে নিন এরপরে আপনি কী করবেন।
  • – নিজে কোনো অফিস বা প্রতিষ্ঠানে আটকে পড়লে যেখানে আছেন, সেখানেই থাকুন। পরিবার ও আপনজনদের সবাইকে নিশ্চিত করার জন্য ফোন বা এসএমএস করে পুরো পরিস্থিতিটা জানান। সাথে মোবাইল না থাকলে বা মোবাইলে চার্জ না থাকলে যেখানে আছেন সেখানকার ফোনটি অনুরোধ করে ব্যবহার করতে পারেন। সব দিক থেকে ‘ওকে’ সংকেত পেলে তবেই ওই জায়গা থেকে বের হোন।
  • – জ্যামে আটকা পড়লে অস্থির হয়ে কোনো লাভ নেই। চিন্তা করে দেখুন, রাস্তার ওই জায়গা থেকে পায়ে হেঁটে আপনি অন্য রাস্তা ধরতে পারবেন কি না। কাছাকাছি কোনো রাস্তা থেকে একটু ঘুরে হলেও যদি নিরাপদে বাড়ি ফিরতে পারেন, তার চেষ্টা নিন। জরুরি অ্যাপয়েন্টমেন্ট থাকলে সেখানে ফোন করে জানান আপনার অপারগ অবস্থার কথা।
  • – গণ্ডগোলের এলাকায় যদি বাচ্চার স্কুল হয় তাহলে সাথে সাথে স্কুলে ফোন করুন, যেন ওখান থেকে কোনোভাবেই বাচ্চাকে ছাড়া না হয়। স্কুল কর্তৃপক্ষকে বলুন সবকিছু থামলে আপনি নিজে গিয়ে আপনার সন্তানকে নিয়ে আসবেন। সেই সাথে ফোনে আপনার সন্তানকে চান। ওর সঙ্গে কথা বলে ওকে সাহস যোগান, যাতে বেশি ভয় পেয়ে সে অসুস্থ না হয়ে পড়ে।
  • – যদি ১৪৪ ধারা জারি হয় তাহলে ওই অঞ্চলে যাবেন না। জরুরি কোনো অ্যাপয়েন্টমেন্ট থাকলে তা বাতিল করুন। আর যদি আপনি নিজেই ওই এলাকায় থাকেন এবং আপনার বেরিয়ে আসাটা জরুরি হয় তাহলে কাছাকাছি টহলদার পুলিশ ভ্যানের কোনো দায়িত্বরত অফিসারের সাথে কথা বলুন। অনুরোধ করুন, আইন জারিকৃত এলাকা থেকে বেরিয়ে আসতে তাদের সাহায্য নিন।