Press "Enter" to skip to content

স্বয়ং ইসি’র প্রশ্ন- নির্বাচন কেন করি?

নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মাহবুব তালুকদার বলেছেন, এবারের উপজেলা নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিচ্ছে না। এতে এই নির্বাচন জৌলুস হারাতে বসেছে। নির্বাচন সার্বিকভাবে অংশগ্রহণমূলক হচ্ছে না। এই সত্যকে মেনে নিয়েই নির্বাচন করতে হবে।

উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তাদের নিয়ে আয়োজিত কর্মশালায় লিখিত বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। মঙ্গলবার নির্বাচন কমিশন ভবনে হয় এই কর্মশালা।

জাতীয় নির্বাচনের আগে বিভিন্ন সময়ে সিইসির বক্তব্যের সঙ্গে ভিন্নমত দিয়ে আলোচনায় ছিলেন ইসি মাহবুব তালুকদার। উপজেলা নির্বাচনকে সামনে তিনি রেখে বলেন, এই কর্মশালায় এসে আমার মনে একটি প্রশ্ন জেগেছে, আমরা নির্বাচন কেন করি? এর উত্তর অত্যন্ত সহজ, গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য। গণতন্ত্র হচ্ছে ভোটের মাধ্যমে জনপ্রতিনিধিদের বেছে নেওয়া এবং তাদের দিয়ে জাতীয় বা স্থানীয় পর্যায়ে দেশ পরিচালনা করা। কিন্তু বাস্তবতা হচ্ছে চেয়ারম্যান পদে দলীয় মনোনয়নপ্রাপ্ত ব্যক্তিরা প্রায় প্রত্যেকেই নির্বাচিত হবেন এবং ওই পদে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে না।

মাহবুব তালুকদার আরও বলেন, নির্বাচন অংশগ্রহণমূলক না হলে বিশ্বাসযোগ্য ও গ্রহণযোগ্য শব্দ দুটির ঔজ্জ্বল্য থাকে না। তারপরও আনুষ্ঠানিকতার কারণেই নির্বাচন করে যেতে হয়। পরিস্থিতি যা-ই হোক না কেনো, নির্বাচনের মৌলিক কাঠামো যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেদিকে সতর্ক থাকতে হবে।

নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে মাহবুব তালুকদার বলেন, নির্বাচন আইনানুগ হতে হবে। ভোটারেরা যাতে নির্বিঘ্নে ভোট দিতে পারেন, তা নিশ্চিত করতে হবে। রিটার্নিং ও সহকারী রিটার্নিং অফিসারদের দায়িত্ব পালনে কোনো শিথিলতা সহ্য করা হবে না। আমরা প্রশ্নবিদ্ধ কোনো নির্বাচন করতে চাই না। নির্বাচনে নিয়োজিত বিভিন্ন বাহিনীর সঙ্গে সমন্বয় করে আপনাদের দায়িত্ব পালন করতে হবে।

শেয়ার অপশন: