ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৩৮ ঢাকা, রবিবার  ২১শে অক্টোবর ২০১৮ ইং

কোর্ট

সৌদি দূতাবাস কর্তা হত্যায় হাইকোর্টের রায়ই বহাল

সৌদি দূতাবাসের কর্মকর্তা খালাফ আল আলী হত্যা মামলায় হাইকোর্টের দেয়া রায় বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

ফলে এ মামলায় দোষী সাব্যস্ত সাইফুল ইসলামের মৃত্যুদণ্ড এবং মো. আল আমিন, আকবর আলী ওরফে রবি ও রফিকুল ইসলাম খোকনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড বহাল রইল।

এ ছাড়া সেলিম চৌধুরী ওরফে সেলিম আহম্মেদকে খালাসের দেয়া রায়ও বহাল রইল।

বুধবার ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ হাইকোর্টের রায় বহালের এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সাইফুল ইসলামের পক্ষে ছিলেন সাবেক বিচারপতি সিকদার মকবুল হক।

উল্লেখ্য, ২০১২ সালের ৫ মার্চ রাত ১টার দিকে রাজধানীর গুলশান কূটনৈতিক এলাকায় বাসার সামনে গুলিবিদ্ধ হন খালাফ আল আলী (৪৫)। ৬ মার্চ ভোরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তিনি মারা যান।

এ ঘটনার করা মামলায় মো. আল আমিন, আকবর আলী ওরফে রবি, রফিকুল ইসলাম খোকন, সাইফুল ইসলাম ও সেলিম চৌধুরী ওরফে সেলিম আহম্মেদকে অভিযুক্ত করে চার্জ গঠন করা হয়।

২০১২ সালের ৩০ ডিসেম্বর খালাফ আল আলীকে হত্যার দায়ে ৫ আসামির সবাইকে ফাঁসির আদেশ দেন দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল।

এর পর হাইকোর্টে ডেথ রেফারেন্স ও জেল আপিলের শুনানি শেষে ২০১৩ সালের ১৮ নভেম্বর আসামি সাইফুলকে বিচারিক আদালতের দেয়া মৃত্যুদণ্ডাদেশ বহাল ও সেলিমকে খালাস দেন হাইকোর্ট।

অন্যদিকে মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত আল আমিন, রবি ও খোকনের সাজা কমিয়ে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়।

এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষ। এর ওপর শুনানি শেষে আদালত ১০ অক্টোবর রায়ের দিন রেখেছিলেন।

ওই দিন এ মামলার অ্যাডভোকেট অন রেকর্ড মাহমুদা বেগম আদালতকে জানান, এ মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি সাইফুলের পক্ষে আইনজীবী না থাকায় শুনানিতে অংশ নিতে পারেননি।

সাইফুলের পক্ষে আইনজীবী হিসেবে সাবেক বিচারপতি সিকদার মকবুল হককে নিয়োগ প্রদান এবং তার শুনানিতে অংশ নেয়ার আবেদনের কথা আদালতকে অবহিত করেন মাহমুদা বেগম।

এর পর আপিল বিভাগ মামলাটি পুনরায় শুনানির জন্য ১০ অক্টোবর নতুন দিন ধার্য করেন।

এর ধারাবাহিকতায় গত ২৪ অক্টোবর বিষয়টি শুনানির জন্য ওঠে। এদিন আসামি সাইফুলের আইনজীবী সিকদার মকবুল হক সময়ের আবেদন জানালে আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানির দিন ধার্য করেন।

এদিনে শুনানি শেষে বুধবার রায় ঘোষণা করেন ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহ্হাব মিঞার নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের আপিল বেঞ্চ।