ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৬:২৯ ঢাকা, রবিবার  ২২শে জুলাই ২০১৮ ইং

আছাদুজ্জামান মিয়া
ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া, ফাইল ফটো

‘সোশ্যাল মিডিয়াকে বন্ধ নয়, নিয়ন্ত্রণ করতে হবে’

ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, কিশোর অপরাধ দমনে সোশ্যাল মিডিয়াসহ যে কোনো ধরনের তথ্য আদান-প্রদানের মাধ্যম বন্ধ নয়, এটিকে নিয়ন্ত্রণ করেই এগিয়ে যেতে হবে।

আজ রাজধানীর তেঁজগাওস্থ এফডিসিতে ব্র্যাক, ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি ও এটিএন বাংলা আয়োজিত ‘বিতর্কবিকাশে’র উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এ কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, বর্তমান সময়ে তথ্যই বড় শক্তি। সোশ্যাল মিডিয়াকে ব্যবহার করে কিশোর অপরাধ বেড়েই চলেছে, যা মারাত্বক হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এটি বন্ধ নয়, নিয়ন্ত্রণ করতে হবে।

বিভিন্ন জায়গাতে ফেসবুকভিত্তিক যে গ্যাং কালচার অপরাধ চালু হয়েছিল তা আমরা নিয়ন্ত্রণ করতে সক্ষম হয়েছি- এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কিশোর অপরাধ কমিয়ে আনতে আইন প্রয়োগের পাশাপাশি তাদের মাঝে সামাজিক-মানবিক মূল্যবোধ দৃঢ়ভাবে তৈরি করার উপর গুরুত্ব বাড়াতে হবে।

একই সাথে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় সকলকে এগিয়ে আসতে হবে বলেও জানান তিনি।

ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূুচির প্রধান প্রফুল্ল চন্দ্র বর্মণ, ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির পরিচালক জাহিদ রহমান, ব্র্যাক শিক্ষা কর্মসূচির ম্যানেজার মো. মোফাকখারুল ইসলাম, ন্যাশনাল ডিবেট ফেডারেশনের মহাসচিব মুস্তাফিজুর রহমান খান প্রমুখ ।

হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন,সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহারের উপকারিতা থাকলেও তথ্যপ্রযুক্তির যুগে সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ, নারী নির্যাতন, কিশোর অপরাধ রোধে সোশ্যাল মিডিয়ার অবাধ ব্যবহার নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। একই সাথে মাদকাসক্তি ও হত্যা-খুনের প্রবণতাও বাড়ছে।

তরুণ ও কিশোরদের অতিমাত্রায় সোশ্যাল মিডিয়া আসক্তি উদ্ভাবনী শক্তি নষ্ট করছে। তাদের সুষ্ঠু জীবনযাপনের জন্যে অভিভাবক ও শিক্ষকদের সন্তানদের প্রতি দৃষ্টি রাখার আহবান জানান তিনি।