ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:০৭ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

সিরিয়ায় অস্ত্রবিরতি জোরদারের আহ্বান ওবামার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা সিরিয়ায় যুদ্ধরত দলগুলোর প্রতি ভঙ্গুর অস্ত্রবিরতি জোরদারের আহ্বান জানিয়েছেন। সিরিয়ার আলেপ্পোয় সরকারি ও বিদ্রোহীপক্ষের বোমাবর্ষণে ২৬ বেসামরিক নাগরিক নিহত হওয়ার প্রেক্ষাপটে ওবামা রোববার এ আহ্বান জানান।

সিরিয়ায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ ও সরকার বিরোধী বিদ্রোহী গোষ্ঠীর মধ্যে চলা অস্ত্রবিরতির আট সপ্তাহের মধ্যে আলেপ্পো শহরে সংঘর্ষ চরম আকার ধারণ করেছে। সরকারি বাহিনীর বিমান ও বিদ্রোহীদের রকেট হামলার কারণে অনেক বেসামরিক নাগরিক প্রাণ হারাচ্ছে।

এদিকে সিরিয়ার পাঁচ বছরের সংঘর্ষ চূড়ান্তভাবে বন্ধে অস্ত্রবিরতি ভিত্তি হিসেবে কাজ করবে বলে যে আশা করা হয়েছিল সহিংসতা বেড়ে যাওয়ায় ও জেনেভায় স্থবির হয়ে পড়া শান্তি আলোচনার কারণে তা অনেকটাই ক্ষীণ হয়ে যাচ্ছে।

তাই ওবামা জানান, বাশার আল আসাদের গুরুত্বপূর্ণ মিত্র রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের সাথে আলাপকালে তিনি অস্ত্রবিরতি জোরদারের চেষ্টার আহ্বান জানান।

জার্মানিতে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, গত সপ্তাহে আমি প্রেসিডেন্ট পুতিনের সাথে কথা বলেছি। তাকে শত্রুতা বন্ধে অস্ত্রবিরতি জোরদারের চেষ্টা করার আহ্বান জানিয়েছি।

এদিকে সিনিয়র একজন মার্কিন প্রশাসনিক কর্মকর্তা জানান, সিরিয়ার বিদ্রোহীদের প্রতি সহায়তা জোরদার করতে যুক্তরাষ্ট্র আরো আড়াইশ সামরিক প্রশিক্ষণার্থী পাঠাবে। সোমবার ওবামার এ ঘোষণা দেয়ার কথা রয়েছে।

আলেপ্পো ও এর আশপাশে সহিসংতা বেড়ে যাওয়ার পরও কর্মকর্তারা অস্ত্রবিরতি অকার্যকর এ ঘোষণা এখনও দেননি। তবে সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস’র প্রধান রামি আবদেল রহমান বলছেন, আলেপ্পো ও এর আশেপাশে যে মাত্রায় সংঘর্ষ হচ্ছে তার অর্থ অস্ত্রবিরতি আর কার্যকর নেই।

সিরিয়ার সহিসংতা বন্ধে জেনেভায় যে শান্তি আলোচনা চলছে তাও প্রায় মুখ থুবড়ে পড়েছে। কারণ সিরিয়ার প্রধান বিরোধী গ্রুপ গত সপ্তাহে আলোচনা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রত্যাহার করেছে। যদিও জাতিসংঘের বিশেষ দূত আলোচনা বুধবার পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।

এদিকে রোববার প্রচারিত বিবিসি’র এক সাক্ষাতকারে ওবামা সতর্ক করে বলেন, প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদকে উৎখাতে সিরিয়ায় স্থল সৈন্য পাঠানো উচিত হবে না।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কিংবা ব্রিটেন অথবা পশ্চিমা দেশের জোটের উচিত হবে না সিরিয়ায় আসাদকে উৎখাতে স্থল সৈন্য পাঠানো।
তিনি সকলের প্রতি এক টেবিলে বসে সমস্যার সমাধানের আহ্বান জানান।