ব্রেকিং নিউজ

রাত ৪:৫৯ ঢাকা, শনিবার  ২২শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

সালাহ উদ্দিন শিলংয়ের জেলহাজতে

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার তাকে আদালতে তোলা হলে শিলংয়ের জজ আদালত তাকে ১৪ দিনের জন্য জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

গতকাল মঙ্গলবার নেগ্রিমস হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পর পুলিশ হেফাজতে ছিলেন বিএনপি নেতা সালাহ উদ্দিন আহমেদ।
দুই মাস ‘নিখোঁজ’ থাকার পর গত ১১ মে ভারতের শিলংয়ে সালাহ উদ্দিন আহমেদের খোঁজ পাওয়া যায়। কিন্তু তিনি কিভাবে শিলংয়ে গেলেন তা নিয়ে নতুন রহস্য তৈরি হয়েছে, যা এখনও উন্মোচিত হয়নি।
গত ১০ মার্চ ঢাকার উত্তরা থেকে নিখোঁজের ৬৩ দিন পর ১১ মে ভারতের মেঘালয়ের শিলংয়ে সালাহ উদ্দিনের খোঁজ মেলে। ১২ মে সালাহ উদ্দিনকে শিলং সিভিল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। আগের দিন তাকে উদ্ধার করে একটি মানসিক হাসপাতালে নেয়া হয়েছিল।
বৈধ কাগজপত্র ছাড়া ভারতে প্রবেশ করায় ফরেনার্স অ্যাক্ট অনুযায়ী সালাহ উদ্দিনকে গ্রেফতার দেখায় মেঘালয় পুলিশ। এরপর তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শিলংয়ের নেগ্রিমস হাসপাতালে নেয়া হয়। গত শুক্রবার শিলংয়ের একটি আদালতে তার পক্ষে জামিন আবেদন করেন তার স্ত্রী হাসিনা আহমেদ। এ বিষয়ে ২৯ মে পুলিশকে প্রতিবেদন জমা দিতে বলেছে আদালত।