ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:৩৫ ঢাকা, সোমবার  ২০শে আগস্ট ২০১৮ ইং

“সাবেক মন্ত্রী মোশাররফের বিরুদ্ধে গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা চলবে”

চারদলীয় জোট সরকারের সাবেক জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী ও বিএনপি নেতা এ কে এম মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা গ্যাটকো দুর্নীতি মামলা চলবে মর্মে আদেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে মোশাররফের দায়ের করা রিট আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে আগামী ৬০ দিনের মধ্যে তাকে নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করতে বলা হয়েছে। ফলে বিচারিক আদালতে মোশাররফের বিরুদ্ধে এ মামলাটি চলতে আর কোনো বাধা থাকলো না বলে জানিয়েছেন দুদকের আইনজীবী।
বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি এস এম মজিবুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ রায় দেন। আদালতে দুদকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট খুরশীদ আলম খান।
গত ৫ আগস্ট এ মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার করা আবেদনও খারিজ করে দেন হাইকোর্ট। পাশাপাশি তাকে বিচারিক আদালতে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেয়া হয়।
ঢাকার কমলাপুর আইসিডি ও চট্টগ্রাম বন্দরের কন্টেইনার হ্যান্ডেলিংয়ে গ্লোবাল অ্যাগ্রো ট্রেড কোম্পানি লিমিটেডকে (গ্যাটকো) ঠিকাদার হিসেবে নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগে ২০০৭ সালের ২ সেপ্টেম্বর মোশাররফের বিরুদ্ধে এ মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন।
এ মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ মোট ১৩ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় গ্যাটকোকে ঠিকাদার হিসেবে নিয়োগ দিয়ে রাষ্ট্রের ১৪ কোটি ৫৬ লাখ ৩৭ হাজার ৬১৬ টাকা ক্ষতির অভিযোগ আনা হয়।
২০০৮ সালের ১৩ মে খালেদা জিয়া ও তার সাবেক ছয় মন্ত্রীসহ ২৪ জনের বিরুদ্ধে এ মামলায় অভিযোগপত্র (চার্জশিট) দেয়া হয়।
পরে মামলার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে আবেদন করেন এ কে এম মোশাররফ হোসেন। হাইকোর্ট আবেদনের শুনানি নিয়ে ২০০৮ সালের ১৩ আগস্ট মামলার কার্যক্রম স্থগিত এবং রুল জারি করেন। পরে বেশ কয়েক দফায় মামলার কার্যক্রমের ওপর স্থগিতাদেশ বাড়ান আদালত। মঙ্গলবার এ মামলার আবেদনের বিষয়ে হাইকেোর্টের জারি করা রুল নিষ্পত্তি করে আদালত এ রায় দিলেন।