ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৪৯ ঢাকা, বুধবার  ১৯শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

হাসানুল হক ইনু
হাসানুল হক ইনু, ফাইল ফটো

‘সাইবারজগত ও গণমাধ্যমকে সুরক্ষা দিতে আইন হচ্ছে’ – তথ্যমন্ত্রী

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, দেশের সাইবারজগতকে নিরাপদ রাখতে সমন্বিত সাইবার আইন ও অনলাইনসহ সকল ইলেকট্রনিক গণমাধ্যমকে প্রাতিষ্ঠানিক সুরক্ষা দিতে অনলাইন নীতিমালা ও সম্প্রচার আইন প্রণীত হচ্ছে।

তিনি বলেন, সংবিধানে প্রদত্ত অধিকারগুলো বজায় রেখে গণমাধ্যম ও সাইবারজগত নিয়ে কর্মরত অংশীজনরাই এসকল নীতি ও আইনের খসড়া প্রণয়ন করছে।

তথ্যমন্ত্রী আজ বাংলাদেশ প্রেস ইন্সটিটিউট (পিআইবি) সেমিনার হলে ইউনেস্কো বাংলাদেশের সহায়তায় বাংলাদেশ সেন্টার ফর ডেভেলপমেন্ট জার্নালিজম এন্ড কমিউনিকেশন ‘স্টেট অব্ জার্নালিজম ইন বাংলাদেশ উইদিন দ্য কনটেক্সট অব ফ্রিডম অব্ এক্সপ্রেশন’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

আলোচনার সূত্র ধরে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সংবাদজগতে সাম্প্রতিককালের ব্যাপক প্রসারের সাথে সাথে অসত্য ও হলুদ সাংবাদিকতা রুখতে তথ্যভিত্তিক সাংবাদিকতার চাহিদা বেড়েছে। মনে রাখতে হবে, গণমাধ্যম বিভ্রান্তি তৈরি, চরিত্রহনন, স্বার্থসিদ্ধি বা উস্কানির জায়গা নয়।’

এসময় দেশের গণমাধ্যম বিষয়ে বিদেশি, বিশেষ করে এমনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের প্রতিবেদনের অসম্পূর্ণতা ও তথ্যের ঘাটতি তুলে ধরে বক্তাদের আলোচনার বিষয়ে হাসানুল হক ইনু বিদেশি সংস্থাসমূহকে তাদের প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য তথ্য মন্ত্রণালয় বা এর অংগসংস্থাগুলোর সাথে যোগাযোগ ও প্রশ্নোত্তরে উৎসাহিত করেন।

পিআইবি মহাপরিচালক মো. শাহ আলমগীরের সভাপতিত্বে এবং একুশে টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী মঞ্জুরুল আহসান বুলবুলের সঞ্চালনায় মানবাধিকার গবেষক এড সুলতানা কামাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকতা ও গণযোগাযোগ বিভাগের অধ্যাপক গীতি আরা নাসরীন, টিভি ব্যক্তিত্ব মুহাম্মদ জাহাঙ্গীর প্রমূখ আলোচনায় অংশ নেন।

ইউনেস্কো বাংলাদেশের গবেষণাপ্রসূত মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টেলিভিশন, ফিল্ম ও ফটোগ্রাফি বিভাগের অধ্যাপক এ জে এম শফিউল আলম ভুঁইয়া। ইউনেস্কো বাংলাদেশের যোগাযোগ ও তথ্য শাখার প্রোগ্রাম অফিসার নাঈমা নার্গিস সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।