Press "Enter" to skip to content

সাইফুলের সঙ্গে হামলা পরিকল্পনায় ছিল একাধিক ব্যক্তি

শোক দিবসের অনুষ্ঠানে আত্মঘাতী হামলা চালানোর পরিকল্পনাকারী নব্য জেএমবির সদস্য সাইফুলের সঙ্গে একাধিক ব্যক্তি ছিল বলে দাবি করেছেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিঞা।

বুধবার বেলা ১১টায় ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে ‘শব্দ দূষণ ও হাইড্রোলিক হর্ণ বন্ধে করনীয়’ বিষয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এসব কথা জানান তিনি।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, সাইফুলের সঙ্গে একাধিক ব্যক্তি ছিল। কাউন্টার টেরোরিজম ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা তাদের গ্রেফতারে তৎপরতা শুরু করেছেন। এই জঙ্গিদের বড় ধরনের নাশকতা ঘটানোর সক্ষমতা নাই। তবে বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটাতে পারে।

সাইফুল সম্পর্কে তিনি আরও জানান, সে সম্প্রতি নব্য জেএমবিতে যোগ দিয়েছিল। তার পরিচয় আমরা নিশ্চিত করতে পেরেছি। কিন্তু রাজনৈতিক পরিচয় নিশ্চিত করা যায়নি।

মঙ্গলবার রাজধানীর পান্থপথের হোটেল ওলিও ইন্টারন্যাশনালের পুরনো ভবনে আত্মঘাতী হন সাইফুল ইসলাম (২১)। তাকে ও তার সহযোগীদের ধরতে কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট ‘অপারেশন আগস্ট বাইট’ নামের অভিযান পরিচালনা করে।

শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!