Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

দুপুর ১২:৫৫ ঢাকা, সোমবার  ১৯শে নভেম্বর ২০১৮ ইং

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ফাইল ফটো

সাঁওতালদের ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে : মির্জা ফখরুল

সাঁওতালদের ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

সোমবার দুপুরে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বিএনপির যুগ্ম হাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেলের মুক্তির দাবিতে এক বিক্ষোভ সমাবেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে সবচেয়ে অবহেলিত, শোষিত ও নিরীহ সম্প্রদায় সাঁওতালদের ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে। তাদের পিটিয়ে পিটিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিয়ে ঘরে আগুন দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘শুধু তাই নয়, রাষ্ট্রীয় বাহিনীকে ব্যবহার করে তাদেরকে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও ধিক্কার জানাচ্ছি। আমরা মনে করি এটা গণহত্যার শামিল।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই সারা দেশে ধর্মীয় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের ওপর নির্যাতন করা হচ্ছে। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় প্রমাণিত হয়ে গেছে আওয়ামী লীগের লোকজনই এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িত।

তিনি বলেন, বৌদ্ধ,খৃস্টানসহ সব ধর্মের মানুষের ওপর আক্রমণ হচ্ছে। আর ইসলাম ধর্মের মানুষ প্রতি মুহূর্তে একটা চাপের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এ সরকার কোনো ধর্মেই বিশ্বাস করে না। তাদের দর্শন হচ্ছে- দুর্নীতি, লুটপাট ও ক্ষমতায় টিকে থাকা।

মির্জা ফখরুল বলেন, তারা (সরকার) বলছে প্রবৃদ্ধি বেড়েছে। প্রবৃদ্ধি বেড়েছে ক্ষমতাসীনদের। তাদের ব্যক্তিগত সম্পদ বেড়েছে। সেই সম্পদ তারা বিদেশে পাচারও কারা হচ্ছে। শুনতে পাচ্ছি, কানাডায় নাকি বেগম বাজার নামে একটা এলাকাই প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সিঙ্গাপুরে বাড়ি হচ্ছে ও সুইস ব্যাংকে এদেশের মানুষের টাকার পরিমাণ বাড়ছে। এসবই শাসক গোষ্ঠীর লোকজনের সম্পদ।

চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ১৫১জনকে বিনাবিচারে ও আইনশৃংখলা বাহিনীর হেফাজতে থাকা অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশে কোনো বিচার নেই। আইনের শাসনে নেই।

এ সময় অবিলম্বে সব রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলাপ আলোচনা করে নিরপেক্ষ সরকার ও নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের অধীনে জাতীয় নির্বাচনের উদ্যোগ নেয়ার দাবি জানান বিএনপি মহাসচিব।

জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবকদল এ সমাবেশের আয়োজন করে। সংগঠনের সভাপতি শফিউল বারী বাবুর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভূইয়া জুয়েলের পরিচালনায় এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবুল খায়ের ভূইয়া, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, স্বেচ্ছাসেবক দলের সহ সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, গোলাম সারোয়ার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আলী প্রমুখ।