ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১১:০১ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

সর্বনিম্ন ১৫ হাজার টাকা বেতন দাবি পোশাক শ্রমিকদের

বাংলাদেশের পোশাক শ্রমিকরা তাদের মাসিক বেতন সর্বনিম্ন ১৫ হাজার টাকা দাবি করেছেন। বর্তমানের তাদের বেতন পাঁচ হাজার ৩০০ টাকা। একটি বাংলাদেশি ওয়েবসাইটের বরাত দিয়ে ফাইবার ২ ফ্যাশন ডটকম এই তথ্য জানিয়েছে।
প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পোশাক শ্রমিকদের নতুন এই দাবির ফলে তৈরি পোশাক খাতে সমস্যা সৃষ্টি হতে পারে।
ফোরাম বলেছে, বর্তমান দ্রব্যমূল্যের উপর ভিত্তিকরে মৌলিক পুষ্টির প্রয়োজনীয়তা পূরণে সর্বনিম্ন বেতন ১৫ হাজা টাকা দাবি করা হয়েছে।
ঢাকায় আয়োজিত ফোরামের এক আলোচনা সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের খাদ্য ও পুষ্টিবিজ্ঞান বিভাগের একটি গবেষণা উদ্ধৃত করে বলা হয়, গড়ে ১০ ঘণ্টা কাজ করা একজন পূর্ণবয়স্ক পুরুষের দিনে ন্যূনতম ৩ হাজার ৩৬৪ ক্যালরি ও নারীর ২ হাজার ৪০৬ ক্যালরি দরকার।
ফোরামের হিসাবে, পাঁচ সদস্যের একটি পরিবারের জীবনযাপনের জন্য ন্যূনতম ২৪ হাজার ৫০০ টাকা প্রয়োজন।
বক্তাদের মধ্যে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম, বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের নেতা খালেকুজ্জামান, তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুত্-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আনু মোহম্মদ।
শ্রমিকদের প্রতি সরকার ‘অবহেলা’ করছে এমন অভিযোগ জানিয়ে সিপিবি প্রধান সেলিম বলেন, সরকার তার পিয়নের জন্য ১৩ হাজার ৮০০ টাকা ধার্য করেছে। পোশাক শ্রমিকরা বেশি দক্ষ। সরকারের উচিত তাদের বেতন  সর্বনিম্ন ১৫ হাজার টাকা ধার্য করা।
বেতন বৈষম্যের বিরুদ্ধে সব শ্রমিকদের একজোট হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন খালেকুজ্জামান। তিনি বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রে একজন শ্রমিক ঘণ্টায় সর্বনিম্ন ১৫ ডলার পান। আর সেখানে বাংলাদেশের শ্রমিকরা এক মাসে পান ৫ হাজার ৩০০ টাকা (৬৭ ডলার)।