ফাইল ফটো

সরকার পরিকল্পিতভাবে ট্যাঙ্কার ডুবিয়ে দিয়েছে

সুন্দরবনের মধ্যে তেলবাহী ট্যাঙ্কারডুবির পর নৌমন্ত্রীর বক্তব্যের জেরে  সন্দেহ পোষণ করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, তার বক্তব্য থেকে বোঝা যায় এই ঘটনায় মন্ত্রণালয়ের কতটা অবহেলা, উদাসীনতা রয়েছে। কিছুটা ইচ্ছাকৃতভাবে এই ঘটনা ঘটেছে।

শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। এসময় তদন্ত সাপেক্ষে এই দুর্ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবি করেন তিনি।

সরকার সুন্দরবনকে ধ্বংস করছে অভিযোগ করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকার সুন্দরবনকে নিঃশেষ করার চক্রান্তে লিপ্ত রয়েছে। তাই সুন্দরবনের পাশে রামপালে ভারতীয় বিষাক্ত কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শুরু করেছে। সরকার পরিকল্পিতভাবে শ্যালা নদীতে ফার্নেস অয়েল ভর্তি অবৈধ ট্যাঙ্কার ডুবিয়ে দিয়েছে।’

উল্লেখ যে, সুন্দরবনে ট্যাঙ্কারডুবির ঘটনা পরিদর্শন করে নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছিলেন, ছড়িয়ে যাওয়া কালো তেলের প্রভাবে সুন্দরবনের তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। এছাড়া তিনি নৌ চলাচল বন্ধ করার সিদ্ধান্তের বিষয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন।

নৌমন্ত্রীর বক্তব্য সারাদেশে সমালোচনা শুরু হলেও তিনি আবারও দাবি করেছেন, তেল ছড়িয়ে পড়ার কারণে সুন্দরবনের কোনো প্রাণী মারা যায়নি। অন্যদিকে পরিবেশ মন্ত্রণালয় বলছে, ছড়িয়ে পড়া তেলের কারণে সুন্দরবনের ব্যাপক ও দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি হয়েছে।

সর্বশেষ সংশোধিত: , মাধ্যম: