ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:২০ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

রুহুল কবির রিজভী
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ফাইল ফটো

‘সরকার জনগণকে লোডশেডিং উপহার দিচ্ছে’

আওয়ামী লীগ সরকার বিদ্যুৎ উৎপাদন বাড়ানোর কথা বলে জনগণের পকেট থেকে লাখো কোটি টাকা বের করে নিয়ে জনগণকে লোডশেডিং উপহার দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি।

আজ মঙ্গলবার রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন দলের সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেন, ভয়াবহ লোডশেডিংয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, খুলনা ও রাজশাহীর মতো বড় বড় শহর-নগরে দফায় দফায় ভয়াবহ লোডশেডিং হচ্ছে।

গ্রামাঞ্চল ও মফস্বল শহরে প্রায় ১০ থেকে ১২ ঘণ্টা লোডশেডিং হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন এ বিএনপি নেতা।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, কুইক রেন্টাল বিদ্যুৎ স্থাপন করে মূলত লুটপাটেরই সুযোগ দেয়া হয়েছে, আর কেটে নেয়া হয়েছে সাধারণ মানুষের পকেট।

রিজভী বলেন, অনুন্নয়নের শরীরে প্রসাধনী মাখালেই উন্নয়ন হয় না, সেটি হয় ধাপ্পাবাজি। আওয়ামী সরকার সেই কাজটি করছে।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎ সংকটে সারা দেশের মানুষের যখন ত্রাহি দশা, তখন বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) ওয়েবসাইট দিচ্ছে সম্পূর্ণ ভিন্ন তথ্য।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব বলেন, পিডিবির ওয়েবসাইটে দেখা গেছে, সোমবার ও এর আগের কয়েকদিন দেশে চাহিদার চেয়ে বেশি বিদ্যুৎ উৎপাদিত হয়েছে।

ওয়েবসাইটের বরাতে তিনি জানান, ২১ মে বিদ্যুতের চাহিদা ছিল ৮ হাজার ৮০০ মেগাওয়াট, উৎপাদন ছিল ৮ হাজার ৮৩০ মেগাওয়াট। ২০ মে চাহিদা ছিল ৮ হাজার ৭০০ মেগাওয়াট, উৎপাদন ছিল ৮ হাজার ৮১৯ মেগাওয়াট।

পিডিবির এই তথ্য ডাহা মিথ্যাচার দাবি করে রিজভী বলেন, সরকার জনগণকে ধোকা দিচ্ছে। আমরা সরকারের এহেন মিথ্যাচারের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ করছি।

এসময় বিএনপি নেতা সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, তাইফুল ইসলাম টিপু, সুলতানা আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।