ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:৪১ ঢাকা, মঙ্গলবার  ২২শে মে ২০১৮ ইং

ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ফাইল ফটো

‘সরকার কোন নির্বাচনে হস্তক্ষেপ করেনি-করবেও না’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আসন্ন রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করতে নির্বাচন কমিশন (ইসি)-কে সকল ধরনের সহায়তা প্রদান করা হবে।

তিনি বলেন, ‘ নারয়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন ও কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করতে যেভাবে সরকার ইসিকে সহায়তা করেছে, রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনেও সেভাবে সহায়তা দেয়া হবে।’

কাদের বলেন, জনগণ যাকে খুশি তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচত করবে। সরকার কোন নির্বাচনে কখনো হস্তক্ষেপ করে নি এবং ভবিষ্যতেও করবে না।

ওবায়দুল কাদের আজ সকালে রাজধানীর তোপখানা রোডের বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন(বিএমএ) মিলনায়তনে আয়োজিত এক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর ওর্য়াল্ডস ডকুমেন্টারী হেরিটেজ হিসেবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষনা উপ-কমিটি ‘ ৭ মার্চ : আলোকের ঝর্ণাধারা ’ শীর্ষক এ সেমিনারের আয়োজন করে।

তথ্য ও গবেষনা উপ-কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. সাইদুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সমকাল সম্পাদক গোলাম সারোয়ার।

আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সেমিনারে আলোচনায় অংশ গ্রহন করেন পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক ড. কাজী খলিকুজ্জামান, অধ্যাপক ড. কবি আব্দুস সামাদ, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শিল্পী বুলবুল মহলানবিশ ও ইউনেস্কোর কান্ট্রি ডিরেক্টর বিয়েট্রিস খলদুন।

সেমিনারে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মোজাফফর হোসেন পল্টু, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা (বাসস)’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক শামসুন নাহার চাপা ও কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য মারুফা আক্তার পপি প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বঙ্গবন্ধুর পরিবার সততা, যোগ্যতা ও মেধার দিক থেকে বিশ্বের কাছে রোল মডেল। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্ব স্বীকৃত সৎ, দক্ষ ও যোগ্য রাজনীতিবিদ।

তিনি বলেন, বিশ্বের সৎ রাজনীতিবিদদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তৃতীয় ও কর্মঠ রাজনীতিবিদদের মধ্যে পঞ্চম। সৎ রাজনীতিবিদদের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন জার্মানীর এঞ্জেলা মারকেল ও সিঙ্গাপুরের লী। তারা দু’জন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চেয়ে এগিয়ে থাকলে পয়েন্ট ব্যবধান খুবই সামান্য।

বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের ব্যক্তিগত অবস্থানের কথা তুলে ধরে সেতুমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ সরকারের সময় কোন হাওয়া ভবন গড়ে উঠেনি এবং কারো বিরুদ্ধে মানি লন্ডারিংয়ের অভিযোগ নেই।

বঙ্গবন্ধুর পরিবার থেকে সততা, সাহস ও দক্ষতার ওপর শিক্ষা নেয়ার জন্য দলীয় নেতা-কর্মীদের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, ক্ষমতা দখলের জন্য মানুষকে পুড়িয়ে মারা ছাড়া বিএনপি এমন কোন কাজ করতে পারে নি যাতে দেশের মানুষ তাদের ভোট দেবে।

দেশের মানুষ সততার মূল্য দেয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে পদ্মা সেতু যেমন দৃশ্যমান বাস্তবতা তেমনি মেট্রোরেল, ফোরলেন মহাসড়ক ও দেশের সার্বিক উন্নয়নও দৃশ্যমান বাস্তবতা।

কাদের বলেন, দেশের মানুষ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সততা ও যোগ্য নেতৃত্বের প্রতি আস্থাশীল। আওয়ামী লীগ দেশের মানুষের এ আস্থাকে কাজে লাগিয়ে আবারো ক্ষমতায় আসতে পারবে বলে তিনি দৃঢ় আস্থা ব্যক্ত করেন।

অধ্যাপক ড. কাজী খলিকুজ্জামান বলেন, বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্ব দেশ স্বাধীনতা লাভ করলেও মুক্তি লাভ করতে পারে নি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর মুক্তির সংগ্রামের নেতৃত্বদান করে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু যেমন স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন, তেমনি তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শোষনের হাত থেকে জনগনের মুক্তি এনে দেবেন।

অধ্যাপক ড. সাইদুর রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাঙ্গালী জাতির জন্য সবচেয়ে বড় সম্পদ। আর এ সম্পদকে কাজে লাগানো সম্ভব হলেই দেশ প্রকৃত মুক্তির স্বাদ পাবে।

তিনি বলেন, আর এ জন্য তরুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর জন্য শুধু গর্বিত না হয়ে তাঁর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে কাজ করতে হবে।