পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, কেন্দ্রীয় সরকারের দুর্নীতি দমন তদন্ত সংস্থার চাপ এবং প্রতিহিংসার রাজনীতির কারণে তৃণমূল কংগ্রেস নেতা এবং টালিউড অভিনেতা তাপস পালের মৃত্যু হয়েছে।

আজ বুধবার রবীন্দ্র সদনে তাপস পালকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

মমতা বলেন, তাপস পাল কেন্দ্রীয় এজেন্সিগুলো দ্বারা তীব্র চাপের মধ্যে ছিলেন এবং কেন্দ্রের প্রতিহিংসার রাজনীতির শিকার হন।

তাপস পাল দুবার লোকসভার সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন। তৃণমূলের সাবেক এই সংসদ সদস্য গতকাল মুম্বাইয়ে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তিনি রোজ ভ্যালি চিট-ফান্ড কেলেঙ্কারির মামলায় অভিযুক্ত ছিলেন এবং এক বছরের বেশি সময় জেলে ছিলেন।

এ দিন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী অভিযোগ করেন, তদন্ত সংস্থা দ্বারা ‘হয়রানির’ শিকার হয়ে এ পর্যন্ত তৃণমূলের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। তাপস পাল ছাড়া অন্য দুই তৃনমূল নেতা হলেন সুলতান আহমেদ এবং ভারতের সাবেক ফুটবলার প্রসূন বন্দ্যোপাধ্যায়।