Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৫:১৮ ঢাকা, শুক্রবার  ১৬ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ফাইল ফটো

‘সরকারের গণতন্ত্রের কিলিং মিশনের দায়িত্বে ছিল বিচারপতি খায়রুল ও মানিক’

সাবেক প্রধান বিচারপতি এ বি এম খায়রুল হক ও বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে সরকার গণতন্ত্রের কিলিং মিশনের দায়িত্ব দিয়েছিল বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। এই দুই বিচারপতি বিচার অঙ্গনের নিরপেক্ষতাকে অপবিত্র করেছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি ।

শনিবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, সরকার সাবেক এই দুই বিচারপতিকে গণতন্ত্রের কিলিং মিশনের দায়িত্ব দিয়েছিল। তারা দায়িত্ব পালন করে সংবিধান লঙ্ঘন করেছেন। শামসুদ্দিন চৌধুরীর দ্বৈত নাগরিকত্ব রয়েছে। তাকে গ্রেফতার করে বিচারের আওতায় আনার দাবিও জানান বিএনপির এই নেতা।

রহুল কবির রিজভী  বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সরকার ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সারা দেশে বিএনপির প্রার্থী ও সমার্থকদের গ্রেফতার ও গুম করছে। সাতক্ষীরার  যুবদল নেতা নির্বাচনের টাকা ব্যাংকে জমা দিতে গেলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। জয়পুরহাটে  বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী আব্দুর রব বুলুকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তুলে নিয়ে গেছে। এখন পর্যন্ত তার খোঁজ  মিলে নাই। অবিলম্বে তার খোঁজ ও আদালতে হাজির করার আহবান জানান তিনি।

তিনি বলেন, গত ১৮ ফেব্রুয়ারি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে প্রায় আটজন দলীয় নেতাকর্মীকে কালো রংয়ের মাইক্রোবাসে করে তুলে নিয়ে যায় পুলিশ। এরপর থেকে তাদের আর পাওয়া যাচ্ছে না। বিএনপি নেতাকর্মীরা নিরাপদে রাস্তায় চলাফেরা করতে পারছে না। এ জন্য দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এর বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।

স্বৈরাচারী শাসকেরা জনগণ ও গণতন্ত্রকে ভয় পায় মন্তব্য করে রিজভী বলেন, সরকারের নির্দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বিএনপির কার্যালয় ও নেতাকর্মীদের বাড়ি-ঘর ভাংচুর করছে।  আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখন জনগণের সেবক নয় তারা এখন শেখ হাসিনার বাহিনী। আওয়ামী লীগ সরকার বিরোধী দল বিহীন এক দলীয় শাসনব্যবস্থা লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- কেন্দ্রীয় যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, বিএনপির শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, কেন্দ্রীয় স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু প্রমুখ।