“সরকারী পরিসংখ্যান বলছে খাদ্যদ্রব্যের দাম কমেছে”

দেশে চলতি অর্থবছরের সেপ্টেম্বর মাসে খাদ্যের মূল্যস্ফীতি কিছুটা কমেছে। তবে সাধারণ মূল্যস্ফীতি কিছুটা বেড়েছে।
বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর (বিবিএস) সর্বশেষ উপাত্ত অনুসারে, সেপ্টেম্বর মাসে খাদ্যে মূল্যস্ফীতি আগস্ট মাসের তুলনায় ৫ দশমিক ৯২ শতাংশে নেমে আসে। আগস্ট মাসে তা ছিল ৬ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ।
অন্যদিকে, সাধারণ মূল্যস্ফীতি বেড়ে দাঁড়ায় ৬ দশমিক ২৪ শতাংশ। আগস্ট মাসে তা ছিল ৬ দশমিক ১৭ শতাংশ।
আজ এনইসি-২ সম্মেলন কক্ষে মাসিক ভোক্তা মূল্য (সিপিআই) সূচক প্রকাশকালে পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল বলেন, পবিত্র ঈদুল আযহার কারণে সারা দেশে পণ্য মূল্য কিছুটা বেড়েছে।
পরিকল্পনা মন্ত্রী বলেন, কিছুটা বৃদ্ধি সত্ত্বেও তা এখনও বার্ষিক মূল্যস্ফীতি লক্ষ্যমাত্রা ৬ দশমিক ৫ শতাংশের মধ্যেই আছে।
তিনি আরও বলেন, গত ছয় বছরে স্থিতিশীল বিনিময় মূল্যও মূল্যস্ফীতিকে কাঙ্খিত মাত্রায় রাখতে সক্ষম হয়েছে।
খাদ্য ছাড়া অন্যান্য সামগ্রির ক্ষেত্রেও কিছুটা উর্ধ্বমুখী প্রবণতা লক্ষ্য করা গেছে। আগস্ট মাসে এ হার ছিল ৬ দশমিক ৩৫ শতাংশ এবং সেপ্টেম্বর মাসে তা বেড়ে দাঁড়ায় ৬ দশমিক ৭৩ শতাংশ।
উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মূল্যস্ফীতির হার ছিল ৬ দশমিক ২৫ শতাংশ। অথচ ২০১৩ সালের অক্টোবর থেকে ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এ হার ছিল ৭ দশমিক ২২ শতাংশ।