ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৫৭ ঢাকা, সোমবার  ২০শে আগস্ট ২০১৮ ইং

ইকবাল মাহমুদ
দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ, ফাইল ফটো

সরকারি অপচয়-দুর্নীতি বন্ধে ব্যবস্থা নেবে দুদক 

দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, দুদকের কর্মপরিকল্পনার দ্বিতীয় বছরে সরকারি প্রায় ২৫টি সেক্টরে অপচয়-দুর্নীতি বন্ধ করতে আমরা ব্যবস্থা নেব।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগকে দুদক থেকে তথ্য সরবরাহের জন্য বলা হলেও সরকারের বড় বড় প্রকল্পের কোন তথ্য পায়নি দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ ব্যাপারে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, আমাদের অনুরোধে কেবিনেট ডিভিশনও বিষয়টি সকল মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে। তবে আমরা এ বিষয়েও এখনও তেমন কোনো তথ্য উপাত্ত পাইনি।

সোমবার দুপুরে কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন। দুদক চেয়ারম্যান বলেন, আমরা সরকারকে বলেছিলাম বড় বড় প্রজেক্টে যদি আপনারা মনে করেন দুর্নীতি প্রতিরোধ করার জন্য আমাদের সাহায্য লাগবে, আমাদের জানাবেন। মন্ত্রণালয়গুলো থেকে বড় বড় প্রকল্পের তথ্য উাপত্ত না পেলেও আমরা দুর্নীতি প্রতিরোধ স্ব প্রণোদিত হয়েই কাজ করছি। আমরা লক্ষ্য রাখছি দুর্নীতি হওয়ার আগেই যাতে দুর্নীতি বন্ধ ও প্রতিরোধ করা যায়। সরকারের পক্ষ থেকে সাড়া না পওয়া হতাশাব্যঞ্জক কি না জানতে চাইলে ইকবাল মাহমুদ বলেন, এটা হতাশাব্যঞ্জক না। দুর্নীতি প্রতিরোধের বিষয়টা চলমান। সরকার চেষ্টা করছে, কেবিনেট ডিভিশন বলেছে, এটি একটি নতুন কনসেপ্ট।

এসময় সাংবাদিকরা ২০১৮ সালে কমিশনের কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে জানতে চাইলে দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেন, দুদকের পাঁচ বছর মেয়াদী কর্মপরিকল্পনার দ্বিতীয় বছর শুরু হয়েছে। সরকারি প্রায় ২৫টি সেক্টরে অপচয়-দুর্নীতি বন্ধ করতে আমরা ব্যবস্থা নেব এবং দৃশ্যমান কিছু কাজ করার চেষ্টা করব, যাতে সবাই বুঝতে পারে দুর্নীতি বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।