ব্রেকিং নিউজ

সকাল ৮:১৮ ঢাকা, রবিবার  ২৩শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মাহবুব-উল-আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি, ফাইল ফটো

‘সমাজের নেতা ইমামদের জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ ইসলামের শান্তির বার্তা প্রতিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে ইমামদের এগিয়ে আসার আহবান জানিয়েছেন। কেউ যেন কোন ধর্মকে বিতর্কিত করতে না পারে তার জন্য সবাইকে সজাগ থাকার কথাও বলেন তিনি।

হানিফ বলেন, ‘ইসলাম সবসময় শান্তির কথা বলে। ইসলাম নাশকতা, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদকে কখনো সমর্থন করে না। ইসলামের শান্তির বার্তাগুলো প্রতিটি মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে ইমামদের এগিয়ে আসতে হবে, কারণ ইমামরা হলেন সমাজের নেতা। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তাদের সোচ্চার হতে হবে। ’

মাহবুব-উল আলম হানিফ আজ দুপুরে খুলনা সরকারি মহিলা কলেজ মিলনায়তনে খুলনা জেলার ইমাম ও আলেম ওলামাদের নিয়ে ‘সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে ইসলামের আহবান’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। খুলনা বিভাগীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা-৩ আসনের সংসদ সদস্য বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য মুহাম্মদ মিজানুর রহমান, খুলনা-১ আসনের সংসদ সদস্য পঞ্চানন বিশ্বাস, খুলনা বিভাগীয় কমিশনার মোঃ আবদুস সামাদ, খুলনা রেঞ্জ ডিআইজি এস এম মনির-উজ-জামান, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মোঃ মাহবুব হাকিম, র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক খোন্দকার রফিকুল ইসলাম, খুলনা জেলা পরিষদ প্রশাসক শেখ হারুনুর রশিদ, এবং পুলিশ সুপার মোঃ হাবিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা প্রশাসক নাজমুল আহসান।

অন্যান্যর মধ্যে বক্তৃতা করেন ডেপুটি পুলিশ কমিশনার মোঃ আব্দুল্লাহ আরেফ ও খুলনা টাউন জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবু সালেহ। স্বাগত বক্তৃতা করেন খুলনা বিভাগীয় ইসলামিক ফাউন্ডেশনের পরিচালক মোঃ লোকমান হোসেন। কর্মশালায় খুলনা জেলার এক হাজার ৫০০ জন ইমাম অংশগ্রহণ করেন।

হানিফ বলেন, যে কোন মূল্যে জঙ্গি নির্মূল করা হবে। জঙ্গিবাদ ও নাশকতার বিরুদ্ধে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিহত করতে হবে। যারা দেশের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে তাদের সমাজ থেকে বয়কট করা হবে। বাংলাদেশের মাটিতে জঙ্গিবাদের কোন ঠাঁই নেই।

ইসলামের প্রচার, প্রসার ও গবেষণার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, জঙ্গিদের পেছনে করা আছে এবং কারা মদদ দিচ্ছে তাদের খুঁজে বের করা হবে। যারা মানুষ হত্যা করে ইসলাম কায়েম করতে চায় তারা দেশ ও সমাজের শত্রু। এদের কোন ছাড় দেওয়া হবে না জানিয়ে তিনি বলেন, সবাই আজ জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার।

হানিফ অভিযোগ করেন, বিভিন্ন সংগঠনের নামে জামায়াত-শিবির দেশের অভ্যন্তরে পরিকল্পিতভাবে নাশকতা ও গুপ্তহত্যা চালিয়ে নৈরাজ্য সৃষ্টি করছে। জনগণকে সাথে নিয়ে এ সব ষড়যন্ত্র প্রতিহত করা হবে এবং ’৭১-এর পরাজিত শত্রুরা আবার যাতে মাথা চাড়া দিতে না পারে সেদিকে সকলকে দৃষ্টি রাখার আহবানও জানান তিনি।