Press "Enter" to skip to content

‘সমাজকে অবক্ষয় মুক্তে খেলাধুলার বিকল্প নেই’

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, এমপি, বলেছেন, দেশকে মাদকমুক্ত ও সমাজকে অবক্ষয় থেকে রক্ষা করতে খেলাধুলার কোন বিকল্প নেই। তরুণ প্রজন্মকে মাদকাসক্তি, জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসবাদ এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের আসক্তি থেকে দূরে রাখতে সকলকে খেলাধুলায় আরো বেশি করে সম্পৃক্ত করার আহ্বান জানান তিনি।

আজ ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি আয়োজিত বার্ষিক ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় হাছান মাহমুদ আরো বলেন, ‘থাইল্যান্ডকে হারিয়ে আইসিসি নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটের বাছাইপর্বে বাংলাদেশ নারী দল টানা দ্বিতীয় বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ায় আসন্ন নারী টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। ক্রীড়া ক্ষেত্রে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতার কারণেই এটি সম্ভব হয়েছে। শুধু তাই নয়, নারী ফুটবল দলও পাকিস্তান-ভারতের মতো দলকে বড় ব্যবধানে পরাজিত করার কৃতিত্ব দেখিয়েছে। আর সেটি সম্ভব হয়েছে বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিকতায় নারীর ক্ষমতায়নের কারণে।

এক প্রশ্নের জবাবে তথ্য মন্ত্রী বলেন, ‘মানববন্ধনের নামে অতীতের মতো বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও ও ভাংচুরের রাজনীতি করলে তা প্রতিহত করবে জনগণ।’

জাতীয় পার্টিতে অস্থিরতা সম্পর্কে হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগ চায় শক্তিশালী বিরোধী দল। এক্ষেত্রে জাতীয় পার্টিতে চলমান অস্থিরতা দূরীকরণে তাদের নেতাদের মধ্যে সমঝোতা রাজনীতিতে অবশ্যই শুভ লক্ষণ। হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ১২৭তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মন্ত্রী বলেন, তিনি ছিলেন গণতন্ত্রের মানস পুত্র। অপসংস্কৃতি আর অপরাজনীতি প্রতিরোধে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর আদর্শ অনুকরণীয়।’

এর আগে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি আয়োজিত বার্ষিক ফুটবল টুর্নামেন্টের ফাইনাল উপভোগ করেন তথ্যমন্ত্রী। টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে আরটিভি। রাজধানীর পল্টনস্থ এম মনসুর আলী জাতীয় হ্যান্ডবল স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের ফাইনালে টাই-ব্রেকারে চ্যানেল টোয়েন্টিফোরকে ৩-১ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় আরটিভি।

নির্ধারিত সময়ের খেলা ২-২ গোলে সমতায় শেষ হয়। প্রতিযোগিতা শেষে চ্যাম্পিয়ন ও রানার-আপ দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটনের কর্মকর্তা এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার, ডিআরইউ‘র সভাপতি ইলিয়াস হোসাইন, সাধারণ সম্পাদক কবির আহমেদ খান, ক্রীড়া সম্পাদক শফিকুল ইসলাম শামীম এবং সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শুকুর আলী শুভ। প্রতিযোগিতায় মোট ৪০টি গণমাধ্যম অংশগ্রহণ করে।

শেয়ার অপশন:
Don`t copy text!