ব্রেকিং নিউজ

রাত ৩:৫৩ ঢাকা, শনিবার  ১৭ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

মাহবুব-উল আলম হানিফ
আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি, ফাইল ফটো

‘সন্ত্রাস আর নাশকতা ছাড়া কিছুই করে নি বিএনপি’

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, বিএনপি জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় রাজনৈতিকভাবে সংকটের মধ্যে রয়েছে।
তিনি বলেন, তারা(বিএনপি) নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রত্যাখাত হওয়ার পর জনগণের জন্য কোন কাজ করেনি। যুদ্ধাপরাধীদের রক্ষার এবং ক্ষমতায় যাওয়ার জন্য সন্ত্রাস আর নাশকতা ছাড়া তারা কিছুই করে নি।
আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, দেশের মানুষ এমন সরকার চায়, যে সরকারের নেতৃত্বে দেশ সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যায়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার জনগণের সেই প্রত্যাশা অনুযায়ী কাজ করছে।
মাহবুব-উল আলম হানিফ আজ দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে দ্বিতীয় দফার দলীয় প্রার্থীদের নামের তালিকা প্রকাশকালে এ কথা বলেন।
দ্বিতীয় দফা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ৬৭২টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হয়। নির্বাচন কমিশন ৬৮৪ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের জন্য তফশিল ঘোষনা করে। তার মধ্যে ১২ টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত করে।
এ সময় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মণি, এডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, মিসবাহ-উদ্দিন সিরাজ, বীর বাহাদুর ঊশে সিংহ, দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. বদিউজ্জামান ভূইয়া ডাবলু, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক এডভোকেট আফজাল হোসেন, কার্য নির্বাহী কমিটির সদস্য সুজিত রায় নন্দী ও আমিনুল ইসলাম আমিন।
মাহবুব-উল আলম হানিফ বলেন, পৌরসভা নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী এবং যে সকল নেতা-কর্মী বিদ্রোহী প্রার্থীদের পক্ষে কাজ করেছে তাদের বিরুদ্ধে যে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনেও বিদ্রোহী প্রার্থী এবং তাদের পক্ষে যে সকল নেতা-কর্মী কাজ করবে তাদের বিরুদ্ধেও একই ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তৃতীয় দফায় যে সকল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন হবে সে সকল ইউনিয়নের প্রার্থীদের নামের তালিকা আগামী ৮ মার্চের মধ্যে পাঠানোর জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি অনুরোধ জানান।
এরআগে আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য এবং মনোনয়ন বোর্ডের সদস্য ও সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে এক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।