একটি সশস্ত্র সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সদস্য হিসেবে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ থেকে রেহাই পেয়েছেন তুরস্কের বিখ্যাত ঔপন্যাসিক আসলি এরদোগান। দেশটির একটি আদালত শুক্রবার তাকে অভিযোগ থেকে নিষ্কৃতি দিয়েছেন।

বর্তমানে জার্মানিতে নির্বাসিত রয়েছেন আসলি। রাষ্ট্রের ঐক্য বিনষ্টের যে অভিযোগ তার বিরুদ্ধে আনা হয়েছিল, সেটি থেকেও তাকে খালাস দিয়েছে ইস্তানবুলের ওই আদালত।- খবর এএফপির

সন্ত্রাসী প্রপাগান্ডা চালানোর অভিযোগ থেকেও তিনি নিষ্কৃতি পেয়েছেন। পৃথিবীর বিভিন্ন ভাষায় তার বই অনুবাদ হয়েছে।

এছাড়া কুর্দিশপন্থী পত্রিকা ওজগুর গুনডেমেও তিনি নিয়মিত কলাম লিখতেন। ২০১৬ সালে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের বিরুদ্ধে ব্যর্থ অভ্যুত্থানের পর পত্রিকাটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

তবে নামের শেষে এরদোগান থাকলেও তুর্কি প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কোনো আত্মীয়তা নেই, বরং তিনি এরদোগানের কট্টর বিরোধী হিসেবে পরিচিত।

আদালতের শুনানিতে শুক্রবার তিনি উপস্থিত ছিলেন না। কিন্তু তার আইনজীবী এরদাল দোগান তার বিৃবতি পড়ে শুনিয়েছেন আদালতে। আসলি এরদোগান বলেন, তার লেখায় কোনো সহিংসতা ছিল না।

তিনি আরও জানান, রাজনৈতিক মন্তব্য কেবল মানবাধিকার লঙ্ঘনের ক্ষেত্রেই সীমাবদ্ধ রয়েছে।