Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

সন্ধ্যা ৭:০৮ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৫ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

ড. হাছান মাহমুদ
আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, ফাইল ফটো

‘সন্ত্রাসী ও যুদ্ধাপরাধী দলের সঙ্গে সংলাপ নয়’

আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগের সঙ্গে কোন সন্ত্রাসী দল ও যুদ্ধাপরাধী দলের সঙ্গে সংলাপ হতে পারে না।

তিনি বলেন, ‘ সংলাপ হয় রাজনৈতিক দলের সঙ্গে রাজনৈতিক দলের। কিন্তু কোন রাজনৈতিক দল যখন সন্ত্রাসী দল হয় এবং কোন দল যুদ্ধাপরাধী দল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয় সে দলের সঙ্গে কোন রাজনৈতিক দলের সংলাপ হতে পারে না।’

আওয়ামী লীগের এ নেতা আরো বলেন, বিএনপি পেট্রলবোমা দিয়ে মানুষ হত্যার জন্য ক্ষমা চাইলে এবং যুদ্ধাপরাধী জামায়াতে ইসলামীর সঙ্গে জোট পরিত্যাগ করলে আওয়ামী লীগের সাথে যে কোন রাজনৈতিক দলের সংলাপ হতে পারে।

বন ও পরিবেশ বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ড. হাছান মাহমুদ আজ সকালে নগরীর সেগুনবাগিচাস্থ ঢাকা রিপোটার্স ইউনিটি মিলনায়তনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ নামে একটি সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও সাফল্য এবং চলমান রাজনীতি ’ শীর্ষক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

সংগঠনের উপদেষ্টা চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, উপ-প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন ও সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট শামসুল হক টুকু এমপি।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি মো. জিন্নত আলী জিন্নাহ, সাধারণ সম্পাদক শাহদাত হোসেন টয়েল ও সহ-সভাপতি চন্দন কুমার ঘোষ।

সাবেক বন ও পরিবেশ মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, সংবিধান অনুযায়ী দেশে আগামী জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আর বিএনপি আগে বর্তমান সরকারকে অবৈধ হিসেবে উল্লেখ করে কোন আলোচনায় আসতে না চাইলেও এখন তারা সংলাপ করতে চায়।

তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচন কমিশন গঠনের জন্য সরকারের সঙ্গে আলোচনা করতে চায়। কিন্তু এ বিষয়ে সরকারের সঙ্গে আলোচনা করার কোন সুযোগ নেই। কারণ সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে নির্বাচন কমিশন গঠন করেন রাষ্ট্রপতি।

আওয়ামী লীগের এ নেতা বলেন, বর্তমান নির্বাচন কমিশন গঠনের পর বিএনপি প্রশ্ন তুলেছিল। আর নানা অজুহাতে তারা গত জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করে নির্বাচন প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়েছিলেন।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রা বিএনপির সহ্য হচ্ছে না। তাই তারা দেশের অগ্রযাত্রাকে ব্যাহত করার জন্য একের পর এক ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে।

ড. হাছান বলেন, বিএনপি জামায়াত বর্তমানে দেশের অগ্রযাত্রাকে নস্যাৎ করার জন্য সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার পথ বেছে নিয়েছেন।

প্রতিবেশী দেশ মায়ানমারের জাতিগত সংঘাতকে কাজে লাগিয়ে কোন অশুভ শক্তি যাতে দেশে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনস্ট করতে না পারে সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি রাখার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান আওয়ামী লীগের এ নেতা।