ব্রেকিং নিউজ

সকাল ১০:৩৩ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

নিজেকে জেলে নেওয়ার বিনিময়ে মাহমুদুর রহমানের মুক্তি চাইলেন ‘মা’

প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে আমার দেশ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মাহমুদুর রহমানের মা মাহমুদা বেগম বলেছেন, ‘আপনার ব্যক্তিগত জিঘাংসা যদি আমার ছেলেকে দীর্ঘদিন জেলে আটক রেখেও পরিতৃপ্ত না হয়ে থাকে, তাহলে আমাকে জেলে নেওয়ার বিনিময়ে আমার নিরপরাধ সন্তানকে (মাহমুদুর রহমান) মুক্তি দিন।  

আজ শুক্রবার বিকেলে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘আমার দেশ’ পরিবারের পক্ষ থেকে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মাহমুদা বেগম বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী কার্যত বিশ্বের সর্বাপেক্ষা ক্ষমতাশালী সরকারপ্রধান। তাঁর নির্দেশ ও ইশারা–ইঙ্গিতে রাষ্ট্রের সকল স্তম্ভ পরিচালিত হচ্ছে। তিনি চাইলেই আমাকে কারাগারে নিয়ে মাহমুদুর রহমানকে মুক্তি দিতে পারেন।’

মাহমুদা বেগম দাবি করেন, প্রধানমন্ত্রীর ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয়–সংশ্লিষ্ট কোনো ষড়যন্ত্রের সঙ্গে মাহমুদুর রহমান জড়িত নেই। তাঁর সত্যনিষ্ঠ লেখালেখির কারণে একের পর এক মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে অন্যায়ভাবে আটকে রাখা হয়েছে। তিনি ‘মিথ্যা মামলা’ দায়ের প্রসঙ্গে একটি বিচার বিভাগীয় তদন্ত করার জন্য প্রধান বিচারপতির প্রতি আহ্বান জানান।

মাহমুদুর রহমানের ওজন ১০ কেজি কমে গেছে দাবি করে মা মাহমুদা বেগম প্রধান বিচারপতির উদ্দেশে বলেন, ‘আপনি দয়া করে আমার ছেলেকে বেআইনি আটকাবস্থা থেকে মুক্তির নির্দেশ প্রদান করে এক অসহায় বৃদ্ধা মায়ের হাহাকার দূর করুন।’

মাহমুদা বেগম বলেন, মাহমুদুর রহমানকে নিয়ে নতুন করে ষড়যন্ত্র শুরু হয়েছে। বাংলাদেশের একজন বিবেকবান মানুষও কি বিশ্বাস করবেন যে শফিক রেহমান ও মাহমুদুর রহমান মিলে যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী সজীব ওয়াজেদ জয়কে অপহরণের পরিকল্পনা করবেন? দুজনই কি একেবারেই নির্বোধ? জয়সহ প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের সব সদস্যই এসএসএফ নিরাপত্তা পেয়ে থাকেন। সেই ভিভিআইপি নিরাপত্তার মধ্যে অপহরণের কল্পকাহিনি কি আদৌ বিশ্বাসযোগ্য?

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কবি ফরহাদ মজহার, আমাদের দেশ পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক সৈয়দ আবদাল আহমদ প্রমুখ।