সদরঘাটে ইজারাদারি প্রথা থাকছেনা

নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, উচ্চ আদালত সদরঘাটে ইজারাদার প্রথা চালুর বিষয়ে যে আদেশ দিয়েছে সেই আদেশ ভ্যাকেট (স্থগিত) করলে সদরঘাটে ইজারাদারি প্রথা পুনরায় বাতিল করা হবে।
তিনি আজ সংসদে স্বতন্ত্র সদস্য হাজী মো. সেলিমের এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে আরো বলেন, ইজারাদার প্রতিষ্ঠান চুক্তির শর্ত ভঙ্গ করে নৌকার যাত্রীদের কাছ থেকে ৫০ পয়সার স্থলে ২ টাকা ভাড়া নিচ্ছে। যাত্রীদের এরকম আরো অনেক হয়রানি করা হচ্ছে।
মন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে সদরঘাটে ইজারাদারি প্রথা বাতিলের নির্দেশনা চেয়েছিলাম। তখন প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, কত টাকা আসে ইজারায়, তখন বিআইডব্লিউ’ এর তথ্যমতে জানিয়ে ছিলাম ২ কোটি টাকা। এর জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন ২ কোটি টাকার চাইতে ২ কোটি মানুষের সেবা দেন। এরপর ইজারাদারি প্রথা বাতিল করি, তৎকালীন বিরোধী দল বিএনপির এক সংসদ সদস্য বলেছিলেন উপরে ফিটফাট ভেতরে সদরঘাট। এর জবাবে আমি বলেছিলাম- আগে ছিল কিন্তু এখন উপরে সদরঘাট ভেতরে সুন্দর ফিটফাট।’
নৌ-পরিবহন মন্ত্রী বলেন, ইজারাদারি প্রথা বাতিল করার পর ইজারাদার প্রতিষ্ঠান থেকে উচ্চ আদালতে আপিল করা হয়। সেই আপিলের প্রেক্ষিতে হাইকোর্ট ইজারাদারি প্রথা চালু রাখার কথা বলেন।
তিনি বলেন, হাইকোর্ট যদি আদেশ স্থগিত করে তাহলে ইজারাদারি প্রথা আবার বাতিল হবে।