ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:০৬ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২১শে জুন ২০১৮ ইং

আদালত

সড়কে তারেকের মৃত্যু: ক্ষতিপূরণ সাড়ে ৪কোটি টাকা

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চিত্রপরিচালক তারেক মাসুদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রায় ৪ কোটি ৬২ লক্ষ টাকা দেয়ার নির্দেশ দিয়েছে উচ্চ আদালত।

সড়ক দুর্ঘটনায় দেশটিতে প্রতিদিন মানুষের মৃত্যুর ঘটনা ঘটলেও এই বিপুল পরিমাণ ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ নজিরবিহীন।

সড়কের নিরাপত্তা নিয়ে যারা কাজ করেন তারা বলছেন, এই ক্ষতিপূরণ দেয়ার নির্দেশ সাধারণ মানুষদের জন্য একটা উদাহরণ হিসেবে কাজ করবে।

নিহতের পরিবারকে ক্ষতিপূরণের অর্থ দিতে হবে ইনস্যুরেন্স কোম্পানি, বাস চালক এবং তিনটি বাস মালিকের পক্ষ থেকে।

রায়ে বলা হয়েছে, তিন মাসের মধ্যে এই অর্থ তারেক মাসুদের পরিবারকে দিতে হবে।

নিহত তারেক মাসুদের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদ আদালত চত্বরে সাংবাদিকদের বলেন, এই রায়ের মাধ্যমে ক্ষতিপূরণ পাওয়ার বিষয়টি আসলে প্রতিষ্ঠিত হলো।

২০১৩ সালের ১৩ই ফেব্রুয়ারি নিহত তারেক মাসুদের পরিবারের সদস্যরা মানিকগঞ্জ জেলা জজ আদালতে মোটরযান অর্ডিন্যান্সের ১২৮ ধারায় বাস মালিক, চালক এবং ইনস্যুরেন্স কোম্পানির বিরুদ্ধে ক্ষতিপূরণ চেয়ে পৃথক দুটি মামলা করেন।

এরই চূড়ান্ত রায় হিসেবে উচ্চ আদালত এই নির্দেশ দিলো। বাস মালিকদের সংগঠন এসোসিয়েশন অব বাস কোম্পানিজের সভাপতি খন্দকার রফিকুল হোসেন বলেছেন, এত বড় অংকের ক্ষতিপূরণ নির্ধারণ করায় এখন আর কোন বাস মালিককে বীমা কোম্পানিগুলো বীমা করাবে না।

“বীমা কোম্পানিগুলো বাস মালিকদের আর বীমা করাচ্ছে না, এখন এতো টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হলে কিভাবে চলবে। একজন বাস মালিক কতো ইনকাম করে। বাড়ি-ঘর সব বেঁচে দিলেও তো সে এতো টাকা দিতে পারবে না। আমি আদালতের রায়ে হতাশ।”

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের এক্সিডেন্ট রিসার্চ ইন্সটিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, ক্ষতিপূরণ দেয়ার এই নির্দেশ একটা উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত তৈরি করবে যা ভবিষ্যতে সাধারণ মানুষরাও দাবি করতে পারবেন।

“সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে এটি অবশ্যই নজিরবিহীন একটা ঘটনা। এ ব্যাপারে কোন সন্দেহ নেই। এটা একটা উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করবে যে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিপূরণ দিতে হয় এবং সেটা এতো বড় অংকের হতে পারে।”

২০১১ সালের ১৩ই আগস্ট ঢাকার কাছে মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও এটিএন নিউজের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মিশুক মনিরসহ পাঁচ জন।

তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসটির সঙ্গে চুয়াডাঙ্গাগামী একটি বাসের সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করে সেসময়। -বিবিসি