ব্রেকিং নিউজ

রাত ৯:২৭ ঢাকা, বুধবার  ২৬শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মোহাম্মদ নাসিম
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, ফাইল ফটো

‘ষড়যন্ত্রে’ বিএনপি-জামায়াতসহ অপশক্তিরা

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য, কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র এবং স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতসহ স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তিরা আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে নানা ষড়যন্ত্র করছে। নানা অজুহাত ও মিথ্যাচারের নামে নির্বাচন প্রতিহত করার কথা বলছে।

আজ রোববার সংসদ ভবনস্থ স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত কেন্দ্রীয় ১৪ দলীয় জোটের এক বৈঠক শেষে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ১৪ দলের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, আগামী নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি-জামায়াত অপশক্তিরা যদি ফের দেশে অগ্নিসন্ত্রাস, জ্বালাও-পোড়াও কিংবা ধ্বংসাত্মক কোন কর্মকান্ড করার চেষ্টা করে তবে ১৪ দল ঐক্যবদ্ধভবে জনগণকে সঙ্গে নিয়ে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলবে। সকল ষড়যন্ত্রের দাঁতভাঙ্গা জবাব দেবে।

তিনি বলেন, বৈঠকে আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় আগামী নির্বাচন জোটগত কিংবা মহাজোটগতভাবে অংশগ্রহণ এবং সকল শরিক বন্ধুদের নিয়ে একসঙ্গে পথচলার ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণায় ১৪ দলের পক্ষ থেকে তাঁর প্রতি অভিনন্দন ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়েছে।

বৈঠকে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেন, গাজীপুর শুধু নয়, আগামী জাতীয় নির্বাচনকে এবং নির্বাচন কমিশনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে বিএনপিসহ স্বাধীনতাবিরোধী অপশক্তিরা নানা ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করছে। জনমনে নির্বাচন নিয়ে সংশয় সৃষ্টি করার জন্য বল্লাহীন মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, আমরা আশা করি, আগামী তিন সিটি করর্পোরেশন নির্বাচনসহ জাতীয় নির্বাচনে বিএনপি অংশগ্রহণ করবে। আর সবগুলো নির্বাচনই অবাধ, নিরপেক্ষ ও সুষ্ঠুভাবে অনুষ্ঠিত হবে। জনগণ স্বাধীনভাবে ভোট দিয়ে তাদের পছন্দের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন।

এর আগে মোহাম্মদ নাসিমের সভাপতিত্বে ১৪ দলের বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন সাম্যবাদী দলের দিলীপ বড়–য়া, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক প্রধান এমপি, গণতন্ত্রী পার্টির অধ্যাপক ডা. শহীদুল্লাহ সিকদার, ওয়ার্কার্স পার্টির আনিসুল ইসলাম মল্লিক, কামরুল আহসান, জাতীয় পার্টি (জেপি) সালাউদ্দিন আহমেদ, বাসদের রেজাউর রশিদ খান, ন্যাপের শফিক আহমেদ খান, তরিকত ফেডারেশনের সৈয়দ রেজাউল হক চাঁদপুরি, জাসদের করিম শিকদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।