তিনি নাকি প্রেসিডেন্ট ওবামার বিশেষ পছন্দের মানুষ। মার্কিন সংবাদমাধ্যম অন্তত তেমনটাই দাবি করে। সেই শ্রী শ্রীনিবাসন কি সত্যিই সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হয়ে আসতে চলেছেন? মার্কিন সংবাদপত্রে প্রকাশিত একটি খবর ফের সেই জল্পনা উস্কে দিল। ওই খবর অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্টের পরবর্তী বিচারপতি হিসেবে হোয়াইট হাউস যে তিন জনের নাম বেছেছে, তার মধ্যে রয়েছে ভারতীয় বংশোদ্ভূত এই বিচারপতির নামও।

গত মাসে আচমকা মারা গিয়েছিলেন মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের প্রবীণ বিচারপতি আন্তোনিন স্কালিয়া। আমেরিকায় সাধারণত সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা বয়স মেনে অবসর নেন না। যত দিন তাঁরা বেঁচে থাকেন, পদে বহাল থাকেন। সুতরাং যত দিন না পর্যন্ত কোনও বিচারপতির মৃত্যু হচ্ছে, মার্কিন সুপ্রিম কোর্টে নতুন বিচারপতির নিয়োগ হয় না। সে দিক দিয়ে দেখতে গেলে, স্কালিয়ার মৃত্যু একটা বিরল সুযোগ তৈরি করে দিয়েছিল।

পদ্মনাভন শ্রীকান্ত শ্রী শ্রীনিবাসনের নাম তখন থেকেই ঘুরপাক খাচ্ছে মার্কিন রাজনীতিতে। ৪৯ বছরের এই ভারতীয় বংশোদ্ভূত বর্তমানে ‘ডিস্ট্রিক্ট অব কলম্বিয়াজ কোর্ট অব অ্যাপিলস’-এর বিচারপতি। বারাক ওবামাই তাঁকে বছর তিনেক আগে এই পদে বসিয়েছিলেন। বলা হয়, এই পদে বসা মানে সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি হিসেবে মনোনীত হওয়ার ক্ষেত্রে এক ধাপ এগিয়ে থাকা। রিপাবলিকান ও ডেমোক্র্যাটদের মধ্যে সামন জনপ্রিয় শ্রী-কে যে ওবামা তাঁর পছন্দের তালিকায় রাখবেনই, সে নিয়ে এক রকম নিশ্চিত ছিল মার্কিন সংবাদমাধ্যম। তাই স্কালিয়ার মৃত্যুর পরপরই শ্রী-কে নিয়ে হইচই শুরু হয়।

ওই কাগজের রিপোর্ট অনুযায়ী, শ্রীনিবাসন ছাড়া ওবামা আরও যে দুই বিচারপতির নাম ভেবেছেন, তাঁরা হলেন ৬৩ বছরের মেরিক বি গারল্যান্ড এবং ৪৫ বছরের কেটাঞ্জি ব্রাউন জ্যাকসন। যদিও মার্কিন সংবাদপত্রের এই দাবি নিয়ে মুখ খোলেননি হোয়াইট হাউস কর্তৃপক্ষ।

রিপাবলিকানরা অবশ্য বারবার দাবি করছেন, স্কালিয়ার শূন্যস্থান কে পূরণ করবেন, তা ঠিক করা উচিত পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্টেরই। তবে প্রেসিডেন্ট ওবামা যে নিজের পছন্দের প্রার্থীকে বসানোর সুযোগ হাতছাড়া করবেন না, তার প্রমাণ এই নতুন তালিকা। তিন জনের মধ্যে শেষমেশ কার ভাগ্যে শিকে ছিঁড়বে, তা অবশ্য সময়ই বলবে। খবর আনন্দবাজারের ।