ব্রেকিং নিউজ

ভোর ৫:৫২ ঢাকা, শুক্রবার  ২১শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

২০১০ সালে শেয়ারবাজারে ধসের পরে বিনিয়োগকারীরা প্রতিবাদে এভাবে বিক্ষোভ করলেও মূলত শেয়ারবাজারে তেমন কোন পরিবর্তন এখনো আসেনি।

শেয়ারবাজারে লোকসান: বিনিয়োগকারীর আত্মহত্যা

শেয়ারবাজারে অব্যাহত লোকসানের মুখে রাজধানীর সবুজবাগে মহিউদ্দিন শাহারিয়ার (৩৫) নামে এক বিনিয়োগকারী আত্মহত্যা করেছেন।

২০১০ সালে শেয়ারবাজার ধসের ঘটনায় মহিউদ্দিনসহ সাতজন বিনিয়োগকারী আত্মহত্যা করলেন। এছাড়াও হৃদযন্ত্র বন্ধ হয়ে মারা গেছেন তিন বিনিয়োগকারী।

বুধবার দুপুরে সবুজবাগ থানা পুলিশ বাসার দরজা ভেঙে মহিউদ্দিনের লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

মঙ্গলবার রাতে সবুজবাগের মাদারটেক এলাকার নিজ বাসায় সিলিং ফ্যানের সঙ্গে ফাঁস দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন।

সবুজবাগ থানার উপপরিদর্শক এসআই সোলাইমান গাজী গণমাধ্যমকে বলেন, শেয়ার ব্যবসায় লোকসানের কারণে মহিউদ্দিনের মানসিক সমস্যা দেখা দেয়। তাকে মানসিক ডাক্তারের মাধ্যমে চিকিৎসাও দেয়া হচ্ছিল। কিন্তু এর মধ্যেই তিনি আত্মহত্যা করেন।

নিহত মহিউদ্দিনের দুলাভাই আরিফুল ইসলাম গণমাধ্যমকে জানান, বুধবার সকালে তাকে ঘুম থেকে তোলার জন্য ডাকাডাকি করেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। খবর দিলে পুলিশ এসে দরজা ভেঙে তার লাশ উদ্ধার করে।

আরিফুল বলেন, এইচএসসি পাস মহিউদ্দিন বেকারত্ব থেকে মুক্তি পেতে বাবার জমি বিক্রি করে শেয়ার ব্যবসা শুরু করেন। কিন্তু ২০১০ সালে শেয়ারবাজারে ধস নামলে তিনি ১০ -১২ লাখ টাকা লোকসানের মুখে পড়েন। গত কয়েক বছরে শেয়ারবাজারে প্রত্যাশিত পরিবর্তন না আসায় তার লোকসান আরও বাড়ে। এতে তিনি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছিল।