ব্রেকিং নিউজ

রাত ১:৩৩ ঢাকা, সোমবার  ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

শেয়ারবাজারে লেনদেনে বড় ধরনের উত্থান-পতন

সোমবার দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) হাজার কোটি টাকা লেনদেন হলেও মঙ্গলবার তা নেমে এসেছে ৭০০ কোটি টাকার ঘরে। দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৭২৫ কোটি টাকা। এক দিনের ব্যবধানে লেনদেন কমেছে ২৭৭ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। সোমবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ২ কোটি ৩৩ লাখ টাকা।

রবিবার চলতি সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবসে ৭৮৮ কোটি ৪১ টাকার লেনদেন হয়েছিল। সোমবার ২১৩ কোটি ৯২ লাখ টাকা বেড়ে হাজার কোটি টাকার লেনদেন হয়। এক দিনের ব্যবধানে মঙ্গলবার লেনদেন কমলো ২৭৭ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। সোমবারের তুলনায় লেনদেন কমার এ হার ২৬ শতাংশেরও বেশি।

হঠাৎ করে শেয়ারবাজারে লেনদেনে বড় ধরনের উত্থান ও পতনকে ঘিরে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে নানা প্রশ্ন তৈরি হয়েছে। সংশ্লিষ্টরা জানান, রাষ্ট্রায়ত্ত ৪টি ব্যাংকের আমানতের সুদের হার কমানোর সিদ্ধান্তে সোমবার বাজার লেনদেনে বড় ধরনের প্রভাব পড়েছিল। মঙ্গলবার স্বাভাবিক লেনদেনের ধারায় ফিরেছে বাজার। এ নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার তেমন কোন কারণ নেই বলে তারা মনে করছেন।

এদিকে মঙ্গলবার লেনদেনের পাশাপাশি সূচকও কমেছে। বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর কমে যাওয়ায় সোমবারের তুলনায় ৩৬.৭৮ পয়েন্ট কমে দিনশেষে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৪৫৮৬.৮৪ পয়েন্টে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

লেনদেন হওয়া ইস্যুগুলোর মধ্যে দিনশেষে দর বেড়েছে ৭৯টির, কমেছে ১৯৫টির ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির দর।

মঙ্গলবার লেনদেনের শীর্ষে উঠে এসেছে সামিট পাওয়ার। দিনশেষে কোম্পানিটির ৫৮ কোটি ৮ লাখ ৯৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। লেনদেনের দ্বিতীয় স্থানে থাকা খুলনা পাওয়ারের লেনদেন হয়েছে ৩৩ কোটি ৪৮ লাখ ২৩ হাজার টাকা। ২৫ কোটি ৫৩ লাখ ১৭ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে বেক্সিমকো।

লেনদেনে এরপর রয়েছে যথাক্রমে- বাংলাদেশ সাবমেরিন ক্যাবল, শাশা ডেনিমস, সাইফ পাওয়ারটেক, গ্রামীণফোন, সামিট এ্যালায়েন্স পোর্ট, ফার কেমিক্যাল, বারাকা পাওয়ার।

দেশের অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সিএসইএক্স ৬৬.৪৭ পয়েন্ট কমে দিনশেষে ৮৬০২.৯২ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ৬০ কোটি ৯৮ লাখ টাকা। লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৪৬টির, কমেছে ১৫৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩০টির দর।