শীর্ষ মিডিয়া

ব্রেকিং নিউজ

বিকাল ৩:০০ ঢাকা, রবিবার  ১৬ই ডিসেম্বর ২০১৮ ইং

ওবায়দুল কাদের
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ফাইল ফটো

“শেখ হাসিনার আমলে ভল্টের স্বর্ণ নিয়ে অপকর্মের সুযোগ নেই”

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘আমি এটুকু বলতে পারি, শেখ হাসিনা সরকারের আমলে ভল্টের স্বর্ণ নিয়ে অপকর্ম করার কোন সুযোগ নেই।’ আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজদের দল বিএনপির নেতাদের মুখে বাংলাদেশ ব্যাংকের ভল্টে রাখা সোনা নিয়ে কথা বলা মানায় না।

তিনি আজ দুপুরে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দেয়া সংবর্ধনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাংলাদেশ ব্যাংকে গচ্ছিত সোনা নিয়ে দেয়া বক্তব্য সম্পর্কে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন।

ভারতের কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্মানসূচক ডিলিট ডিগ্রি অর্জন, মহাকাশে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটে সফল উৎক্ষেপণ, স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে রূপান্তর ও অস্ট্রেলিয়া থেকে গ্লোবাল উইম্যানস লিডারশীপ এ্যাওয়ার্ড অর্জন করায় আগামী ২১ জুলাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আওয়ামী লীগ সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গণসংবর্ধনা দেবে।

ব্যাংকের ভল্টের স্বর্ণ নিয়ে বিএনপি মহাসচিবের বক্তব্য প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের আবারো বলেন, ‘আমি এটুকু বলতে পারি, শেখ হাসিনা সরকারের আমলে এ ধরনের অপকর্ম করার কোন সুযোগ নেই।’

“এখনও পর্যন্ত আমরা যেটা জানি, তা হলো এটা একটা ক্লারিকেল এরর। এছাড়া যদি ভেতরে কোন অনিয়ম হয়ে থাকে তার সুষ্ঠু তদন্ত হবে। যদি কেউ অপকর্ম করে থাকে, তদন্তে বেরিয়ে আসে তাহলে কঠিন শাস্তি তাকে পেতে হবে।”

তিন সিটি নির্বাচন নিয়ে সরকার ও বিরোধীদের পাল্টা পাল্টি বক্তব্যে জনমনে কোন বিরুপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করবে কি না জানতে চাইলে কাদের বলেন, “সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পাল্টা পাল্টি বক্তব্যটাই হচ্ছে গনতন্ত্রের বিউটি। কথা হচ্ছে পাল্টা পাল্টি বক্তব্য ঠিক আছে, সুস্থ বক্তব্য ঠিক আছে, গণতন্ত্রের ভাষায় কথা বলা ঠিক আছে। গণতন্ত্রের ভাষায় কথা বলাটাই গণতন্ত্রের বিউটি।

তিনি বলেন, কিন্তু আজ আমাদের রাজনৈতিক প্রতিপক্ষ বিএনপি বলছে দেশে গণতন্ত্র নেই। অবিরাম অগণতান্ত্রিক ভাষায় তারা বক্তব্য দিয়ে যাচ্ছেন। অগণতান্ত্রিক ভাষায় শেখ হাসিনা সরকারকে, শেখ হাসিনাকে প্রতিনিয়ত তারা আক্রমণ করে যাচ্ছে। অগণতান্ত্রিক ভাষায় যারা কথা বলে তাদের মুখে কি গণতন্ত্রের বুলি মানায়?

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ২১ জুলাইয়ের গণসংবর্ধনা স্থল পরিদর্শনকালে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক এ কে এম এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, উপ প্রচার সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমিন প্রমুখ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।