Sheersha Media

ব্রেকিং নিউজ

রাত ১০:৪২ ঢাকা, মঙ্গলবার  ১৩ই নভেম্বর ২০১৮ ইং

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়
বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ফাইল ফটো

শেখ হাসিনার অধীনে ‘জাতীয় নির্বাচনে’ যাব কেন?

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে জাতীয় নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না বিএনপি বলে জানিয়েছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়।

তিনি বলেন, আমরা দলীয়ভাবে আলোচনায় বসিনি। দলের মধ্যে নানা রঙয়ের লোক আছে, নানা মতের লোক আছে, বিষয়টা আমরা জানি না। পত্রিকার ভাষায় যেটা আসছে সেটা দেখে আমরা দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত নেব। কারণ শুঁটকির নৌকায় বিড়াল পাহারাদার রাখলে কী হবে সেটা আপনারা জানেন। এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। শেখ হাসিনার অধীনে যদি নির্বাচনেই যাব তবে ২০১৪ সালেই আমরা নির্বাচনে যেতে পারতাম। তখন যেহেতু যাইনি তাহলে আবার পাঁচ বছর পরে যাব কেন?

রাজধানীর শেরেবাংলা নগরের সংসদ ভবন এলাকায় অবস্থিত দলের প্রতিষ্ঠাতা ও রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের কবরে শনিবার সকালে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন তিনি। জাতীয়তাবাদী তাঁতী দলের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে এ শ্রদ্ধা জানানো হয়।

শ্রদ্ধা জানানো শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, নবগঠিত নির্বাচন কমিশন (ইসি) রকিবউদ্দীনের (সাবেক নির্বাচন কমিশনার) মতোই কাজ করবেন। কারণ আগের হাল যেদিকে যায়, পেছনের হাল তো সে দিকেই যায়। আমরা নতুন করে এ নির্বাচন কমিশনারের কাছে কিছু প্রত্যাশা করি না। কারণ রকিবউদ্দীনের মতোই তারা কাজ করবে।’

সংবিধান অনুযায়ী জাতীয় নির্বাচনে পর পর দুই বার অংশ না নিলে বিএনপির নিবন্ধন থাকবে না কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, সংবিধানের আলোকে পর পর দুই বার নির্বাচনে না গেলে নিবন্ধন বাতিল হয়। কিন্তু আপনারা কি জানেন, সংসদীয় যে প্রতীকগুলো ছিল, সেগুলো শুধু সংসদ নির্বাচনের জন্য। কিন্তু আজকে নৌকা আর ধানের শীষ স্থানীয় নির্বাচনেও বরাদ্দ হচ্ছে। আজকেও ধানের শীষে আমাদের এক প্রার্থী নির্বাচন করছেন। যখন এটি স্থানীয় পর্যায়ে ব্যবহার হয় তখন জাতীয় সংসদের সিদ্ধান্ত টিকে না।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালম আজাদ ও তাঁতী দলের নেতাকর্মীরা।

 

 

শীর্ষ মিডিয়া১৮/২-ই/বিকে-১