ব্রেকিং নিউজ

রাত ১১:৫৮ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ২০শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ ইং

মোহাম্মদ নাসিম
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, ফাইল ফটো

“শেখ হাসিনাকে আরো ১০ বছর সময় দিতে হবে”

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এবং স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, দেশের সামগ্রিক উন্নয়ন, জঙ্গী দমন, রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা ও শান্তি স্থাপনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের কোন বিকল্প নেই। দেশের উন্নয়ন সমৃদ্ধি ও শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতি বজায় রাখতে হলে দেশ পরিচালনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আরো ১০ বছর সময় দিতে হবে।

আজ শনিবার সিরাজগঞ্জের রতনকান্দি ইউনিয়নের গোবিন্দপোটল সরকারি প্রাইমারী স্কুল মাঠে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

মোহাম্মদ নাসিম

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মোক্তাদির বকুলের সভাপতিত্বে সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবু ইউসুফ সূর্য্য, আওয়ামী লীগের নেত্রী জান্নাত আরা হেনরী, ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

বিএনপি’র নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের দাবী প্রসঙ্গে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সংবিধানে সহায়ক সরকারের কোন বিধান নেই। সংসদ নির্বাচনে সংবিধানের বাইরে যাবারও কোন সুযোগ নেই। নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধিনে।

বর্তমান সরকারের সার্বিক উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের উন্নয়ন সমৃদ্ধি ও শান্তিপূর্ণ পরিস্থিতি বজায় রাখতে হলে দেশ পরিচালনায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আরো ১০ বছর সময় দিতে হবে। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামীলীগের বিজয় নিশ্চিত করতে জনগণের প্রতি তিনি আহবান জানান।

বিএনপির অতীতের আন্দোলন এদেশের মানুষ দেখেছে মন্তব্য করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, তাদের জ্বালাও পোড়াও এবং মানুষ পুড়িয়ে হত্যার আন্দোলন জনগণ সমর্থন করে না। আন্দোলনের হুমকি ধমকি দিয়ে আওয়ামী লীগকে ভয় দেখানো যাবে না। আওয়ামী লীগ জনগণের দল, কোন হুমকি ধমকিতে ভয় পায় না।

এর আগে তিনি সড়ক ও জনপথ বিভাগের আওতাধীন শহীদ এম মনসুর আলী সড়কে প্রায় সাড়ে সাত কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ইছামতি ও ঘাটদহ সেতুর উদ্বোধন করেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক কামরুন্নাহার সিদ্দীকা, পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহম্মেদ, সিভিল সার্জন ডাঃ শেখ মোঃ মনজুর রহমান, এবং সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী নূর ই আলম ও আবু হেনা মোস্তফা কামাল উপস্থিত ছিলেন।

 

শীর্ষ মিডিয়া/বা’স/১/৭-প