ব্রেকিং নিউজ

রাত ৮:৪২ ঢাকা, বৃহস্পতিবার  ১৮ই অক্টোবর ২০১৮ ইং

শীত শীত আবহাওয়ায় করনীয়

মুখঃ শীতে বাজারে আছে নানারকম সব্জী। এই আবহাওয়ার নিষ্প্রান ত্বকে ইন্সট্যান্টলি গ্লো আনতে ১টা গাজর সিদ্ধ করে ১ চামচ মধু সহ ডলে নিন। এবার সারা মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ১ চামচ দুধের সাথে আধা চামচ মধু মিশিয়ে মুখে মেখে ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। দুধের ল্যাকটিক এসিড ত্বকের মরা কোষ উঠিয়ে ফেলতে সহায়তা করে আর মধু ত্বকে আদ্রতা ফিরিয়ে এনে ত্বককে ভেলভেটের মত মসৃন করে তোলে। অর্ধেক টা শসার রস, এক চামচ মধু আর একটা ডিমের সাদা অংশ ব্লেন্ডারে ভালো মত মিক্স করে ফোমের মত বানিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে অল্প অল্প পানি দিয়ে ঘষে ঘষে তুলে নিয়ে এরপর মুখ ধুয়ে ফেলুন। ডিমের সাদা অংশ ত্বকের আদ্রতা সম্পূর্ণ ফিরিয়ে আনে, যেখানে শসার রস ত্বককে সতেজ করে।হাত-পাঃ  হালকা শীতে অনেকের হাত পা শুষ্ক হয়ে যায়। সিজন চেঞ্জের সময় ঠান্ডা লেগে যাওয়ায় অনেকের পক্ষে বেশিক্ষন হাত-পা পানিতে ডুবিয়ে পেডিকিওর মেনিকিওর করাটাও মুশকিল হয়ে যায়। হাত পা পরিষ্কার করার জন্য দুধের সরের সঙ্গে ময়দা মিশাতে থাকুন যতক্ষন রুটি বানানোর গোলার মত শক্ত না হবে। এবার এটাকে অল্প অল্প করে নিয়ে হাতে পায়ে ঘষতে থাকুন। ময়লা উঠে গোলা কালো হয়ে গেলে ফেলে দিন। হাত-পা ও পরিষ্কার হবে, ত্বকের শুষ্কতাও চলে যাবে

চুলঃ  যাদের চুলে নিষ্প্রান ভাব বেশী, শীত শীত আবহাওয়ায় চুল আরো অনুজ্জ্বল হয়ে পড়ে। এটি এড়াতে এক মগ পানিতে দুই টুকরা লেবু চিপে নিন। ঈদের দিনে গোসলের একদম শেষে এই পানিটা দিয়ে চুল ধুয়ে নিয়ে মাথা মুছে ফেলুন। চুলে চকচকে ভাব আসবে।
যাদের চুল কালার করা, তারা সাধারণত মেহদি লাগিয়ে চুলের কালারে বার্নিশড ভাব আনেন। যারা ইতমধ্যে ঠান্ডা লাগিয়ে বসেছেন, তাদের জন্য আছে একটি বিকল্প উপায়। এক লিটার পানিতে ৬ চামচ চা পাতা দিয়ে ফুটাতে ফুটাতে পানি অর্ধেক করে নিন। এবার পানিটা ছেকে ঠান্ডা করে মগে রাখুন। ঈদের দিন গোসল শেষে এই পানিটা দিয়ে চুল ধুয়ে নিন। সূত্রঃ ওয়েবসাইট

Like & share করে অন্যকে দেখার সুযোগ দিন